কোলকাতায় বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ‘ইতিহাস কথা কয়’ শীর্ষক চিত্র প্রর্দশনী উদ্বোধন করলেন ড. অনুপম সেন

 

Mr Shahabuddin Majumder,Abida Islam ( D.H.Commissioner ) ,Mafizur Rahman,Saiful Alam Chowdhury --22-08-14--4কোলকাতাস্থ বাংলাদেশ ডেপুটি হাইকমিশনের উদ্যোগে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে ‘ইতিহাস কথা কয়’ শীর্ষক ৬ দিন ব্যাপী চিত্র প্রর্দশনীর গত শুক্রবার উদ্বোধন করা হয়েছে। উক্ত অনুষ্টানের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য ও প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. অনুপম সেন।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রফেসর ড. অনুপম সেন বলেন, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা আজ সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে যাচ্ছে। আর এই সমৃদ্ধির পথের নেতৃত্ব দিচ্ছেন তাঁরই কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বাংলাদেশ আজ মানব সম্পদসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে ভারতকে অতিক্রম করছে। আর এটা সম্ভব হয়েছে যোগ্য নেতৃত্বের কারনে। যেমনটি বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতা সংগ্রামে পুরো জাতিকে সংগঠিত করেছিলেন। একটি দেশের উন্নয়নের জন্য সর্ব প্রথম দরকার যোগ্য নেতৃত্ব।
ড, সেন বলেন, বঙ্গবন্ধুর দর্শন বাঙালির মুক্তির সনদ। বঙ্গবন্ধু বাঙালিকে মুক্তির পথ দেখিয়েছেন। বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের সর্বশ্রেষ্ঠ ভাষনে পরিনত হয়েছে। বঙ্গবন্ধু বাঙালি জাতির
কোলকাতাস্থ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর সেন্টারে নন্দদুলাল বোস গ্যালারীতে বাংলাদেশের ডেপুটি হাই কমিশন আবিদা ইসলামের সভাপতিত্বে চিত্র প্রর্দশনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন দেশ একটি সম্মিলিত উচ্চারণ’এর চেয়ারম্যান ও দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান। অনুষ্ঠানে দুরদর্শনের সাবেক পরিচালক পংকজ সাহা ও পূর্নদাশ বাউলকে মুক্তিযোদ্ধা সম্মাননা প্রদান করা হয়।
অনুষ্ঠানে ‘দেশ একটি সম্মিলিত উচ্চারণ’এর মুক্তিযোদ্ধা শাহাবুদ্দিন মজুমদারের পলাশি থেকে ধানমন্ডী শিরোনামে চিত্র প্রদর্শনী হয়।
অনুষ্টানে আরো উপস্থিত ছিলেন, সাবেক এমপি মাজহারুল হক শাহ, মুক্তিযোদ্ধা শাহাবুদ্দিন মজুমদার, মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা সাইফুল আলম চৌধুরী, ড. সানাউল্লাহ।
এই ব্যাপারে দেশ একটি সম্মিলিত উচ্চারণ’এর চেয়ারম্যান ও দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান জানান, দেশ একটি সম্মিলিত উচ্চারণ-এর ইতিহাস কথা কয় শীর্ষক এই চিত্র প্রদর্শনীতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসাধারণ কিছু দুলর্ভ ছবি স্থান পেয়েছে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে এই চিত্র প্রদর্শনীটি দেখতে প্রচুর বাঙালি ভিড় করেছেন।