আরোপিত ভ্যাট প্রত্যাহার,শিক্ষার্থীদের জয়

 

 

 

আরোপিত ভ্যাট প্রত্যাহার,শিক্ষার্থীদের জয়
আরোপিত ভ্যাট প্রত্যাহার,শিক্ষার্থীদের জয়

 নিউজ প্রতিবেদন:
সরকার চলতি অর্থবছরের বাজেটে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিকেল এবং ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে শিক্ষার্থীদের টিউশন ফি’র ওপর সাড়ে ৭ শতাংশ হারে ভ্যাট আরোপ করে। জাতীয় রাজস্ব বোর্ড গত ৪ জুলাই এ বিষয়ে আদেশ জারি করে। এরপর থেকেই এসব প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা ভ্যাট প্রত্যাহারের দাবিতে বিক্ষোভ-সমাবেশসহ বিভিন্ন কর্মসূচি প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়, বিজিসিট্রাস্ট বিশ্ববিদ্যালয়, ইস্ট ডেল্টা বিশ্ববিদ্যালয়, পোর্ট সিটি বিশ্ববিদ্যালয়, সার্দান বিশ্ববিদ্যালয়, ইউএসটিসি সহ বিভিন্ন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রায় এক হাজার শিক্ষার্থী ব্যানার ফেস্টুন নিয়ে প্রখর রোদ উপেক্ষা করে আন্দোলন করে আসছে। শিক্ষার্থীদের অবরোধের কারণে ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে নগরবাসীকে।
অবশেষে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বেতনের ওপর আরোপিত ৭.৫ শতাংশ ভ্যাট প্রত্যাহারের ঘোষণায় অবরোধ তুলে নিয়েছে শিক্ষার্থীরা। সরকারের এ সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানিয়ে আনন্দমিছিলও করেছে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

সোমবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে নগরীর ওয়াসা মোড়ে মাইকে ভ্যাট প্রত্যাহারের ঘোষণা দেওয়া হলে উল্লাস প্রকাশ করেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

এসময় ‘জিতছে কারা? শিক্ষার্থীরা’, ‘বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের টিউশন ফি’র লাগাম টেনে ধরুন’, ‘শিক্ষায় ভ্যাট নয়, ভর্তুকি চাই’ শ্লোগান দিতে থাকে শিক্ষার্থীরা।

এছাড়া শিক্ষা ও শিক্ষার্থীবান্ধব সিদ্ধান্তের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানান তারা। সরকারের এ সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানিয়ে আনন্দমিছিলও করেছে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। মিছিলটি ওয়াসার মোড় থেকে শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে জিইসি মোড়ে গিয়ে শেষ হয়।

প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের বিবিএ’র শিক্ষার্থী সুরিনা হক বলেন, ‘শিক্ষাবান্ধব সিদ্ধান্ত নিতে একটু বিলম্ব হলেও শিক্ষার্থীদের বেতনের ওপর আরোপিত ভ্যাট প্রত্যাহার করায় সরকারকে ধন্যবাদ। শিক্ষার্থীদের যৌক্তিক দাবির আন্দোলনের জয় হয়েছে। ’

আন্দোলনে অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীদের ধন্যবাদ জানিয়ে বিজিসি ট্রাস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষার্থী জিএম সালাউদ্দিন আসাদ বলেন, ‘ভ্যাট প্রত্যাহার করে একটি ভালো সিদ্ধান্ত হয়েছে। তবে আরও কিছু উদ্যোগ নেওয়া প্রয়োজন। বিভিন্ন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে মোটা অংকের ফি আদায় করে। কম ফিতে যাতে শিক্ষার্থীরা উচ্চশিক্ষা অর্জন করতে পারে সেজন্য বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে একটি নীতিমালার মধ্যে আনা প্রয়োজন।

দেশে আরও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের দাবি জানিয়ে প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মৌসুমী দাশ বলেন, ‘সরকারের অর্থমন্ত্রীর কারণে সারাদেশের অনেক মানুষকে ভোগান্তির শিকার হতে হয়েছে। শিক্ষা আমাদের অধিকার। শিক্ষালাভের জন্য শিক্ষার্থীদের মাঠে নামতে হবে কেন। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার দেশের অনেক উন্নয়ন করছে। তবে নতুন নতুন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন করছে না কেন?

চকবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আজিজ আহমেদ বলেন, ভ্যাট প্রত্যাহারের ঘোষণা আসায় সাড়ে ১২টার দিকে শিক্ষার্থীরা অবরোধ তুলে নিয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে। তবে অবরোধের কারণে সড়কে কিছুটা যানজট রয়েছে।

এর আগে ভ্যাট প্রত্যাহারের দাবিতে সকাল ১১টার দিকে নগরীর ওয়াসার মোড়ে সড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীরা। ‘নো ভ্যাট, নো ভ্যাট’ শ্লোগানে মুখরিত হয়ে উঠে রাজপথ।