মর্নিংসান২৪ডটকম Date:১৫-১১-২০১৫ Time:৩:১০ অপরাহ্ণ


যানজটে নগরবাসীর মধ্যে বাড়ছে হতাশা, কমছে ধৈর্য্য

যানজটে নগরবাসীর মধ্যে বাড়ছে হতাশা, কমছে ধৈর্য্য

চট্টগ্রাম অফিস :
আমাদের দেশে নাগরিকদের সক্রিয় কর্মঘণ্টার (প্রাইম টাইম/পিক আওয়ার) প্রায় ২০-৪০ শতাংশ নষ্ট হয় এই যানজটে। আর বাকি যে ৬০ শতাংশ থাকে তার উপরও প্রভাব থাকে ওই দুর্ভোগের।গণপরিবহনের দুর্ভোগ নগরবাসীর পারিবারিক জীবনেও এখন প্রভাব বিস্তার করতে শুরু করেছে । প্রতিনিয়ত যানজটের মুখোমুখি হয়ে নগরবাসীর মধ্যে বাড়ছে হতাশা, কমছে ধৈর্য্য। একই সাথে যানজটে নাকাল নগরবাসীর সহনশীলতাও কমেছে আশংকাজনক হারে। অল্পতেই রেগে গিয়ে নিজের অজান্তেই দুর্ব্যাবহার করছে সহ-যাত্রীর সঙ্গে। মেজাজ খিটখিটে হয়ে যাচ্ছে। কমে যাচ্ছে কর্মোদ্যম। ফলে সামগ্রিকভাবে নাগরিকদের কাছ থেকে সঠিক কর্মঘণ্টা পাওয়া থেকে বঞ্চিত হচ্ছে দেশ। আর এ সবকিছুই ঘটছে অসহনীয় যানজটে আটকে থেকে ধীরে ধীরে ঘটে চলা নাগরিকদের মনোবৈকল্যের কারণে। এমনটিই বলছেন মনোরোগ বিশেষজ্ঞরা।

পরিবারের সদস্যদের অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে এখন বসবাসের জন্য বাসা পর্যন্ত নির্বাচন করতে হচ্ছে নগরবাসীকে। সেক্ষেত্রে প্রথমেই অগ্রাধিকার পায় বাচ্চারা। বাচ্চাদের স্কুলের কাছে বাসা নিচ্ছেন বন্দরনগরীতে বসবাসকারী লোকজন। আর বাচ্চা না থাকলে অগ্রাধিকার পাচ্ছে কর্মজীবী স্ত্রীরা। স্ত্রীর কর্মক্ষেত্রের কাছেই বাসা নেয়ার চেষ্টা থাকে গৃহকর্তার। এভাবেই চতুর্মুখী চাপে জীবনধারণ করতে হচ্ছে নগরবাসীকে। আর এইসব সমস্যার মূলে জায়গা করে নিতে সক্ষম হয়েছে বন্দরনগরীর যানজট।

এ প্রসঙ্গে পেশাজীবীরা বলছেন, যানজট এড়াতে সকালের প্রথম প্রহর অফিসগামী হয়ে বা বিকালে আগেভাগে অফিস ছেড়েও গন্তব্যমুখী হওয়ার টার্গেট নিয়েও গণপরিবহনে দুর্ভোগ এড়ানো সম্ভব হচ্ছে না। এভাবে কর্মঘন্টা নষ্ট হচ্ছে বলে পেশাজীবীরা উদ্বেগ ও হতাশা প্রকাশ করেছেন। এমনকি কেউ কেউ নিত্যদিনের যানজটে পড়ে শারীরিক ও মানসিক অসুস্থ হচ্ছেন।

গণপরিবহনে দুর্ভোগ ও যানজটের মানসিক প্রভাব সম্পর্কে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মনোরোগ বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ও সাইকোথেরাপিস্ট মহিউদ্দিন সিকদার বলেন, ‘দীর্ঘ সময় যানজটে আটকে ও রাস্তায় গাড়ির অপেক্ষায় থাকলে মস্তিস্কের উপর বিরুপ প্রভাব পড়ে। নির্দিষ্ট সময়ে গন্তব্যে পৌঁছানোর দুশ্চিন্তায় অনেকের উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা হতে পারে। এছাড়াও যানজটে আটকে বমিভাব, মাথাব্যথা, অস্বস্তিবোধ ইত্যাদি দেখা দেয়। শিশুদের মেজাজ খিটখিটে হতে পারে যানজটে, যা পরবর্তিতে মনোরোগের কারণ হয়ে দাঁড়ায়।’

অন্যদিকে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সৈয়দ মুহাম্মদ সাজ্জাদ কবীর বলেন, ‘যানজট বা গণপরিবহনে দুর্ভোগ শুধু যে আমাদের জীবন থেকে কর্মঘন্টা কেড়ে নিচ্ছে তা নয়, তার চেয়ে জীবনের গুরুত্বপুর্ণ অংশ ‘আত্ববিশ্বাস’ কে ছিনিয়ে নিচ্ছে। একটা মানুষ যখন সময়মত কোথাও পৌছাতে পারে না, কোন কমিটমেন্ট রাখতে পারেনা। তখন সে তার নিজের প্রতি বিশ্বাষটা হারিয়ে ফেলে। আর নিজের উপর বিশ্বাষ হারা মানুষ অন্যকে বিশ্বাস করতে পারে না। এটা এক ধরনের মনবৈকল্য, যা থেকে আস্থাহীনতার সমাজ গড়ে উঠছে।’

পাস্তুরিত দুধ নিয়ে কারসাজি আছে কি না দেখা উচিত: প্রধানমন্ত্রী» « চান্দগাঁওয়ে ডোমখালী খালে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ শুরু» « পাকিস্তানে সামরিক বিমান বিধ্বস্তে নিহত ১৭, আহত ১২» « র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে ধর্ষণকারীর নিহত» « গুজব রটনাকারীদের ধরিয়ে দিতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর» « লামায় বন্যা ও পাহাড় ধসে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে চাল বিতরণ» « কক্সবাজার শহর রক্ষায় ঝাউবন করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর» « দেশের সব উপজেলায় মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর» « সিঙ্গাপুরে ওবায়দুল কাদেরের স্বাস্থ্যের আশানুরূপ উন্নতি» « প্রাইভেটকারে করে এসে ছিনতাইয়ের চেষ্টা, ৩ জনকে গণপিটুনি» «