চমেক চিকিৎসকের আত্মসমর্পণ, জামিন

চমেক চিকিৎসকের আত্মসমর্পণ, জামিন
চমেক চিকিৎসকের আত্মসমর্পণ, জামিন

চট্টগ্রাম অফিস: চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. রানা চৌধুরী বিরুদ্ধে ভুল চিকিৎসার অভিযোগে দায়ের হওয়া একটি মামলায় আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন নিয়েছেন তিনি।

সোমবার চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম ফরিদ আলম ওই চিকিৎসকের জামিন মঞ্জুর করেন।

নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার (প্রসিকিউশন) কাজী মুত্তাকী ইবনু মিনান বলেন, পাঁচ হাজার টাকার বন্ডে আইনজীবীর জিম্মায় চিকিৎসক রানা চৌধুরী জামিন পেয়েছেন। জামিন আদেশ মামলার তদন্ত প্রতিবেদন না আসা পর্যন্ত বহাল থাকবে বলে আদালত জানিয়েছেন।

অস্ত্রোপচারের সময় নুরু আবছার (১৭) নামে এক কিশোরের পেটে গজ-ব্যান্ডেজ রেখে দেয়ার অভিযোগে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের সহকারী রেজিস্ট্রার ডা. রানা চৌধুরীর বিরুদ্ধে ১৯ জানুয়ারি আদালতে মামলাটি দায়ের করা হয়েছিল। ভুক্তভোগী ওই কিশোরের বাবা গাড়িচালক জেবল হোসেন।

অভিযোগে আনোয়ারা উপজেলার জেবল হোসেন বলেন, গত বছরের ৬ নভেম্বর ওই চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে তার ছেলেকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অস্ত্রোপচারের পর তার ছেলের পেটে ব্যথা লাগেলে তিনি ওই চিকিৎসকের পরামর্শ নেন। পরে তিনি দ্বিতীয়বারের মতো তার শরীরে অস্ত্রোপচার করেন। তারপরও তার পেটে ব্যথা থাকে।

পরে তিনি বেসরকারি কয়েকটি হাসপাতালে পরীক্ষা নিরীক্ষা করলে তাকে জানানো হয়, তার ছেলের পেটের ভেতরে গজ-ব্যান্ডেজ রয়েছে। অস্ত্রোপচারের সময় তা পেট থেকে বের করা হয়নি।