দুই ছেলের পর বাবাও চলে গেলেন

দুই ছেলের পর বাবাও চলে গেলেন
দুই ছেলের পর বাবাও চলে গেলেন

নিউজ ডেস্ক:

গ্যাসপাইপে বিস্ফোরণে দগ্ধ দুই ছেলের মৃত্যুর একদিন পর চলে গেলেন বাবা শাহনেওয়াজও।

শনিবার বিকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, শাহনেওয়াজের শরীরের ৯৫ শতাংশ পুড়ে যায়। তার স্ত্রী সুমাইয়ার আক্তারের অবস্থাও আশঙ্কাজনক। তার শরীরের ৯০ শতাংশ পুড়ে গেছে।

গতকাল শুক্রবার বিকালে এই দম্পতির অগ্নিদগ্ধ দুই সন্তান দেড় বছরের জায়ান বিন শাহনেওয়াজ এবং ১৫ বছরের শাহালিন বিন শাহনেওয়াজ মারা যায়।

শুক্রবার সকালে উত্তরার ১৩ নম্বর সেক্টরের ৩ নম্বর রোডের একটি সাততলা ভবনের সপ্তম তলার ফ্ল্যাটে রান্নাঘরের আগুনে পরিবারটির পাঁচজন দগ্ধ হন।

এই দম্পতির মেজ ছেলে জারিফকে (১১) প্রথমদিনই প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়।

শাহনেওয়াজের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়। যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের প্রকৌশল বিভাগে মেইনটেইনেন্স ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে চাকরি করতেন তিনি। গত ২০ ফেব্রুয়ারি উত্তরার ওই ফ্ল্যাটে পরিবার নিয়ে উঠেছিলেন শাহনেওয়াজ।

ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের ধারণা, ওই বাসার গ্যাসের চুলা বা লাইনে সমস্যা ছিল। এর ফলে গ্যাস বের হয়ে রান্নাঘর থেকে পুরো ফ্ল্যাটে ছড়িয়ে যায় এবং সকালে চুলা জ্বালাতে গিয়ে অগ্নিকাণ্ড ঘটে।

শাহনেওয়াজের ছোট ভাই কামরুল হাসান হাসপাতালে সাংবাদিকদের বলেন, চুলার গ্যাসের লাইন লিক থাকায় এই অগ্নিকাণ্ড ঘটেছে।