‘ফাঁসি কার্যকরে সরকার পুরো প্রস্তুত’

'ফাঁসি কার্যকরে সরকার পুরো প্রস্তুত'
‘ফাঁসি কার্যকরে সরকার পুরো প্রস্তুত’

নিউজ ডেস্ক: মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াতে ইসলামীর আমির মতিউর রহমান নিজামীর ফাঁসি কার্যকরে সরকার পুরো প্রস্তুত আছেন বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। তবে নিজামী রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষা চাইবেন কিনা তার জন্য এ মুহূর্তে অপেক্ষা করতে হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

মঙ্গলবার বেলা ৩টার দিকে সচিবালয়ের নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

কবে ফাঁসি কার্যকর হবে সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘ফাঁসি কার্যকরের জন্য যেসব প্রস্তুতি প্রয়োজন, সেসব চলছে। অপেক্ষা করুন, দেখতে পাবেন।’

সোমবার জামায়াতে ইসলামীর আমির মতিউর রহমান নিজামীর রিভিউ খারিজের রায়ের পূর্ণাঙ্গ কপি প্রকাশ করে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। সুপ্রিম কোর্ট রেজিস্ট্রারের দপ্তর থেকে পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ করা হয়। রায় প্রকাশের পর সেটি পাঠানো হয় ট্রাইব্যুনালে। সেখান থেকে রায়ের কপি ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানোর পর রাতে নিজামীকে রায় পড়ে শোনানো হয়। তার কিছুক্ষণ পর চিকিৎসকরা তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেন।

এর আগে গত রোববার রাতে নিজামীকে গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগার থেকে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে আনা হয়। সেখানে তাকে কনডেমড সেলে রাখা হয়।

২০১৪ সালের ২৯ অক্টোবর আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল ১ নিজামীর বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলার রায় ঘোষণা করেন। তার বিরুদ্ধে ১৬টি অভিযোগের মধ্যে আটটি প্রমাণিত হয়। এর মধ্যে চারটি অভিযোগে তাকে ফাঁসির আদেশ দেন ট্রাইব্যুনাল।

এই রায়ের বিরুদ্ধে নিজামীর আপিলের রায় ঘোষণা করা হয় চলতি বছরের ৬ জানুয়ারি। আপিলে আরও তিনটি অভিযোগ থেকে নিজামী খালাস পান। বাকি পাঁচটি অভিযোগে তাকে ট্রাইব্যুনালের দেওয়া দণ্ড বহাল রাখেন আপিল বিভাগ, এর মধ্যে তিনটিতে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়। বাকি দুটি অভিযোগে তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন সর্বোচ্চ আদালত।