ব্যবসায়ীকে হত্যার অপরাধে দু’আসামির যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

ব্যবসায়ীকে হত্যার অপরাধে দু'আসামির যাবজ্জীবন কারাদণ্ড
ব্যবসায়ীকে হত্যার অপরাধে দু’আসামির যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

চট্টগ্রাম অফিস: বোয়ালখালীতে ব্যবসায়ীকে গুলি করে হত্যার অপরাধে দুই আসামিকে সশ্রম যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন চট্টগ্রামের একটি আদালত। আসামিরা বর্তমানে জামিন নিয়ে পলাতক আছে।

বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামের পঞ্চম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ নুরে আলম এ রায় দিয়েছেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- সুজিত চৌধুরী ও জয়দীপ দত্ত।

অতিরিক্ত জেলা পিপি অ্যাডভোকেট লোকমান হোসেন চৌধুরী বলেন, আসামিদের বিরুদ্ধে দণ্ডবিধির ৩০২/৩৪ ধারায় রাষ্ট্রপক্ষে আনা অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আদালত এ রায় দিয়েছেন।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, জগদীশ চন্দ্র সিংহ নগরীর খাতুনগঞ্জের একজন চা পাতা ব্যবসায়ী ছিলেন। ১৯৯৬ সালের ১৫ আগস্ট রাত তিনটার দিকে বোয়ালখালী উপজেলার কানুনগোপাড়ার লক্ষণ দীঘিরপাড়ে শিব মন্দিরের সামনে দিয়ে বাড়ি যাচ্ছিলেন তিনি।

এসময় মন্দিরের ভেতর আগে থেকেই ওঁত পেতে ছিল দুই আসামি সুদীপ ও জয়দীপ। মন্দিরের সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় জগদীশকে গুলি করে হত্যা করে আসামিরা। তখন তারা দু’জনেই মাদকাসক্ত ছিল। তারা প্রায়ই জগদীশদের পারিবারিক শিব মন্দিরটিতে নেশা করতো। এভাবে মন্দিরের পবিত্রতা নষ্ট করায় এর প্রতিবাদ করেছিল জগদীশ। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে জগদীশকে গুলি করে হত্যা করে আসামিরা।

ঘটনার পরদিন জগদীশের স্ত্রী মঞ্জুশ্রী সিংহ বাদি হয়ে বোয়ালখালী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

১৯৯৭ সালের ১২ জানুয়ারি তদন্তের পর মামলার চার্জশিট দেয়া হয়। ২০০০ সালে আসামিদের বিরুদ্ধে আদালত অভিযোগ গঠন করা হয়। ১০ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে দুই আসামিকে সশ্রম যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।