মর্নিংসান২৪ডটকম Date:১০-০৬-২০১৮ Time:১১:৫৬ পূর্বাহ্ণ


ক্রীড়া ডেস্ক  ::   বাংলাদেশ জাতীয় নারী ক্রিকেট দল গ্রুপ পর্বে ছয়বার নারী এশিয়া কাপের চ্যাম্পিয়ন ভারতকে হারিয়েছিল ৭ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে। যদিও ফাইনালের অভিজ্ঞতা বাংলাদেশের জন্য সুখকর নয়। কারণ ফাইনাল মানেই এক ভয়ঙ্কর দুঃস্বপ্ন। পুরুষ ক্রিকেটে বিভিন্ন টুর্নামেন্টের ফাইনাল ম্যাচের ইতিহাস পর্যালোচনা করলে নারীদের সামনে কঠিন এক চ্যালেঞ্জই অপেক্ষা করছে।

আজ রোববার কুয়ালালামপুরের কিনরারা একাডেমি ওভাল মাঠে ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশ সময় দুপুর ১২টায়। ম্যাচটি সরাসরি সম্প্রচার করবে স্টার স্পোর্টস-১। যদিও এবারে নারীদের এশিয়া কাপের আগের ম্যাচগুলো কোনও টিভি চ্যানেল সম্প্রচার করেনি।

এবারের এশিয়া কাপও হচ্ছে গত দুই আসরের মতো টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে। এর আগের চার আসর হয়েছিল ওয়ানডে ফরম্যাটে। আগে পরের সব আসরেই চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ভারত। চারবার ফাইনালে গিয়েছিল শ্রীলঙ্কা আর বাকি দুইবার ফাইনাল খেলেছে পাকিস্তান। এশিয়া কাপে খেলার আগে অবশ্য বাংলাদেশের নারীদের সাফল্যের কাঠি ছিল শূন্যের কোঠায়। কারণ এর আগে দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হয়েছিল বাংলাদেশ নারী দল। তবে সেই হারের হতাশা এশিয়া কাপের মঞ্চে এসে ভুলিয়ে দিল সালমারা। টানা জয়ের মধ্যে দিয়ে প্রথমবারের মতো এমন আসরের ফাইনালে জায়গা করে নেয় বাংলাদেশ।

অন্যদিকে নারী ক্রিকেট দলের মধ্যে সবচেয়ে অভিজ্ঞ দল ভারতীয় নারীরা। গত বিশ্বকাপের রানার্সআপ সহ এশিয়া কাপের সকল ট্রফিই রয়েছে তাদের দখলে। তবে ভারত অভিজ্ঞ দল হলেও আত্মবিশ্বাসের দিক দিয়ে পিছিয়ে নেই বাংলাদেশ। গ্রুপ পর্বে টানা জয় আর ভারতের বিপক্ষে ইতিহাস গড়া জয়ই রোমানাদের আত্মবিশ্বাসের ভিত গড়ে দিয়েছে। নারী এশিয়া কাপের চলতি আসরে দুর্দান্ত খেলেছে বাংলাদেশ নারী দল।

প্রথম ম্যাচে শ্রীলংকার বিপক্ষে ৬ উইকেটে হারের পর আর পরাজিত দলে থাকেনি বাংলাদেশ। শক্তিশালী পাকিস্তান এবং ভারতের বিপক্ষে দুর্দান্ত জয় পাওয়ার পরে, হেসে খেলেই হারিয়েছে তুলনামূলক দুর্বল থাইল্যান্ড ও মালয়েশিয়াকে। চলতি নারী এশিয়া কাপেও প্রায় একই রকম পারফরম্যান্স করেছে বাংলাদেশ নারী দল।

পাকিস্তানকে ৭ উইকেটে হারানোর মাধ্যমে ৪ বছর পর টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে জয়ের দেখা পায় জাহানারা-ফাহিমারা। পরের ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে নিজেদের ইতিহাসের সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড গড়ে পায় অসাধারণ এক জয়।

এরপরের দুই ম্যাচে জয় অনুমেয়ই ছিল বাংলাদেশের জন্য। সবমিলিয়ে ফাইনাল খেলার স্বপ্ন নিয়ে মালয়েশিয়া গিয়ে, দুর্দান্ত খেলেই সেই স্বপ্ন পূরণ করেছে বাংলাদেশ নারী দল। সামনে সুযোগ এবার প্রথমবারের মতো দেশের হয়ে কোন বহুজাতিক টুর্নামেন্টে।

মর্নিংসান / এসএ