যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলসে সন্দেহভাজন এক বন্দুকধারী গ্রেপ্তার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক  ::    যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলসে সন্দেহভাজন এক বন্দুকধারীকে গ্রেপ্তারের মধ্য দিয়ে সেখানকার একটি চেইন শপে দোকানে জিম্মি ঘটনার অবসান হয়েছে। ওই সন্দেহভাজন বন্দুকধারী প্রায় ৪০ জন ব্যক্তিকে দোকানটির ভেতর জিম্মি করে রেখেছিলেন। এ ঘটনায় একজন নিহত হয়েছে। খবর বিবিসির।

লস অ্যাঞ্জেলস পুলিশ ডিপার্টমেন্ট (এলএপিডি) এক টুইট বার্তায় জানিয়েছে, তিন ঘণ্টার চেষ্টায় কোনও ধরনের ঘটনার আগেই আমরা সন্দেহভাজনকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়েছি।

ওই ব্যক্তি বন্দুক নিয়ে ট্রেডার জো’স সুপারমার্কেটে ঢোকার পর সেখান থেকে লোকজনদের পালিয়ে যেতে দেখা যায়। এসময় বন্দুকধারীর হামলায় একজন নারী নিহত হয়েছেন। এর আগে সন্দেহভাজন ব্যক্তি তার দাদী ও অপর এক নারীকে গুলিবর্ষণ করেছে এমন ধারণা থেকে তার গাড়ির পিছু নেয় পুলিশ।

এসময় ওই ব্যক্তি পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে। পরে তার গাড়ি ধাক্কা খেয়ে থেমে গেলে সে ট্রেডার জো’স চেইনশপের ভেতর ঢুকে পড়ে। এলএপিডি জানিয়েছে, সিলভারলেক এলাকার পুলিশের সঙ্গে ২৮ বছর বয়সী ওই আফ্রিকান-আমেরিকান ব্যক্তির ফলপ্রসূ আলোচনার পর সে আত্মসমর্পণ করে। তারা জানিয়েছে, দোকান থেকে বের হওয়ার আগে নিজের হাতে হাতকড়া পড়তে বলা হয় ওই সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে।

তার একটি হাতে আঘাতের চিহ্ন ছিল। পুলিশ জানিয়েছে, ওই ব্যক্তির গুলিতে দোকানের ভেতর এক নারী নিহত হয়েছে।ঐ নারীর পরিচয় নিশ্চিত হওয়া সম্ভব হয়নি। এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এক টুইট বার্তায় লিখেছেন, তিনি পুরো পরিস্থিতি ‘গভীরভাবে’ পর্যবেক্ষণ করছেন।
মর্নিংসান/এসএ