মর্নিংসান২৪ডটকম Date:১৪-১০-২০১৮ Time:১১:০৪ পূর্বাহ্ণ


নিউজ ডেস্ক  ::    আজ রোববার পদ্মা সেতু প্রকল্পের অগ্রগতি এবং এর রেল সংযোগের নির্মাণ কাজ উদ্বোধন করতে পদ্মা সেতু এলাকায় যাবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সূত্রের বরাত দিয়ে বাসস জানায়, বহু প্রতীক্ষিত মেগা প্রকল্প পদ্মা সেতুর কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন করতে মুন্সীগঞ্জের মাওয়া, শরিয়তপুরের জাজিরা ও মাদারীপুরের শিবচর এলাকায় যাবেন প্রধানমন্ত্রী।

পরিদর্শনকালে প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতু রেল সংযোগ নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় ঢাকার সঙ্গে যশোরের রেল লিংক রোডের নির্মাণ কাজ উদ্বোধন করবেন।

প্রধানমন্ত্রী বেলা ১১টার দিকে প্রথমে মাওয়ায় কাজের অগ্রগতি দেখবেন। এরপর ঢাকা-মাওয়া ও পাচ্চর-ভাঙ্গা এন ৮ মহাসড়কের কাজের অগ্রগতি দেখবেন এবং মাওয়া সাইডে রেল লাইন লিংকের কাজের উদ্বোধন করবেন।

প্রধানমন্ত্রী এরপর স্থায়ী নদী শাসন কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন। মাওয়া দিকের সেতুর সামগ্রিক কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন করবেন। পরে বেলা ১১টা ১৫ মিনিটে মাওয়া গোল চত্বরে এক সুধী সমাবেশে বক্তব্য রাখবেন প্রধানমন্ত্রী।

দুপুরে প্রধানমন্ত্রী জাজিরা পয়েন্টে সেতুর কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন করবেন। পরে প্রধানমন্ত্রী শিবচরে যাবেন এবং ইলিয়াস আহমেদ চৌধুরী কাঁঠালবাড়ী ফেরিঘাটে জনসমাবেশে ভাষণ দেবেন। চীনা নির্মাতা প্রতিষ্ঠান চায়না রেলওয়ে গ্রুপ লি. চীন জিটুজি পদ্ধতির আওতায় এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে।

এ ব্যাপারে চীন এক্সিম ব্যাংকের সঙ্গে ২৬৬৭ দশমিক ৯৪ মিলিয়ন ডলারের একটি ঋণচুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। এই প্রকল্পের আওতায় ২৩ কিলোমিটার এলিভেটেড সেতুপথ নির্মিত হবে। এই সেতুপথে একাধিক লিফটসহ দুটি প্লাটফর্ম, একটি মেইন লাইন ও দুটি লুপ লাইন নির্মাণ করা হবে।

প্রধানমন্ত্রী ২০১৫ সালের ১২ ডিসেম্বর শরীয়তপুরের জাজিরা ও মুন্সিগঞ্জের মাওয়ায় মূল সেতু নির্মাণ ও রিভার ট্রেইনিং কাজের উদ্বোধন করেন। এদিকে প্রধানমন্ত্রীর আগমনকে কেন্দ্র করে শরীয়তপুরের জাজিরা, মাদারীপুর ও মুন্সীগঞ্জের সেতু এলাকার মানুষের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা দেখা দিয়েছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

দুই পারেই এখন সাজ সাজ রব। আনন্দের বন্যা বইছে। রাস্তার মোড়ে মোড়ে শত শত তোরণ, বিলবোর্ড, ব্যানার, ফেস্টুন দিয়ে শরীয়তপুর, মাদারীপুর ও মুন্সীগঞ্জ জেলাকে নানা রঙে সাজিয়েছেন দলীয় নেতাকর্মীরা।
মর্নিংসান/এসএ