মর্নিংসান২৪ডটকম Date:১৮-১০-২০১৮ Time:১২:৩০ অপরাহ্ণ


আন্তর্জাতিক ডেস্ক  ::    রাশিয়া অধিকৃত ক্রিমিয়ার একটি কলেজের ভবন ঘুরে ঘুরে শিক্ষার্থীদের গুলি করল এক তরুণ। ওই ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১৯ জন শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে কমপক্ষে ৪০ জন। পরে ওই তরুণেরও লাশ উদ্ধার করা হয়। পুলিশের দাবি, ওই তরুণ আত্মহত্যা করেছে। বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে গতকাল বুধবার কার্চ টেকনিক্যাল কলেজ নামের একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এ ঘটনা ঘটে।

সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, হামলাকারী তরুণের নাম ভ্লাতিস্লাভ রোস্লিয়াকোভ (১৮)। তবে কেন ওই তরুণ এ হামলা করেছে সে ব্যাপারে কিছু জানা যায়নি। জানা যায়, বুধবার দুপুরে ভ্লাদিস্লাভ রোস্লিয়াকোভ টেকনিক্যাল কলেজে প্রবেশ করে এলোপাতাড়ি গুলি ছুঁড়তে থাকে। পুলিশ জানিয়েছে, আত্মঘাতী গুলির আলামতসহ ওই তরুণের গুলিবিদ্ধ লাশ কলেজ প্রাঙ্গণে পড়ে থাকতে দেখা যায়।

রাশিয়া ২০১৪ সালে ইউক্রেনের কাছ ক্রিমিয়ার কর্তৃত্ব ছিনিয়ে নেয়। পশ্চিমা দেশগুলো এ নিয়ে রাশিয়ার সমালোচনা করে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, প্রথমে একটি বিস্ফোরণের বিকট শব্দ শোনা যায়। সবাই ছোটাছুটি করতে থাকে। পরে টানা শব্দ চলতে থাকে। ওই তরুণের এলোপাতাড়ি গুলিতে ১৯ জন নিহত হয়।

হামলার পর কলেজে প্রবেশ করেন কলেজটির পরিচালক ওলগা গ্রেবেন্নিকোভা। তিনি বলেন, ‘বারান্দায়, এখানে সেখানে শিক্ষার্থীরা পড়ে আছে। এর চেয়ে বিভীষিকাময় কিছু আর হয় না।’

এ ঘটনার পর রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন দেশটির দক্ষিণাঞ্চলে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে নিহতদের সম্মানে কিছু সময় নীরবতা পালন করেন। পরে তিনি বলেন, ‘এটি পরিষ্কার একটি অপরাধ।’ এ ঘটনায় তদন্ত করা হবে বলেও ঘোষণা করেন রুশ প্রেসিডেন্ট।
মর্নিংসান/এসএ