নৌকায় ভোট দিয়ে আ’লীগকে সেবা করার সুযোগ দিন: প্রধানমন্ত্রী

নৌকায় ভোট দিয়ে আ'লীগকে সেবা করার সুযোগ দিন: প্রধানমন্ত্রী
নৌকায় ভোট দিয়ে আ’লীগকে সেবা করার সুযোগ দিন: প্রধানমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশকে বিশ্বদরবারে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছে জানিয়ে আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমরা যে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে সম্মান লাভ করেছি, সেটা ধরে রাখতে আরেকটিবার আওয়ামী লীগকে ভোট দিন, নৌকায় ভোট দিন।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলেই দেশের উন্নয়ন হয়। তাই আপনারা আরেকটি বার নৌকায় ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে সেবা করার সুযোগ দিন। নৌকা মানেই উন্নয়ন। এই নৌকায় ভোট দিয়ে দেশ স্বাধীন হয়েছে। নৌকায় ভোট দিয়ে মানুষ কখনো ঠকেনি। যখনই ভোট দিয়েছে উন্নয়ন হয়েছে। নৌকার ফলেই সমগ্র বাংলাদেশে উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছে। তাই যারা বিগত দুই টার্মে আমাদের ভোট দিয়ে জনগণের সেবা করার সুযোগ দিয়েছেন তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ।

শনিবার বিকেলে বরগুনার তালতলী সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে স্থানীয় আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতাকালে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন। এর আগে ওই এলাকার বেশ কিছু উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করেন তিনি।

দক্ষিণবঙ্গ একসময় উপেক্ষিত থাকলেও এখন এখানেও উন্নয়নের হাওয়া লেগেছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী স্মরণ করেন, আমি একসময় স্পিডবোটে চড়ে তালতলীতে আসতাম, তখন এটা ইউনিয়ন ছিল। এখন তালতলী উপজেলায় পরিণত হয়েছে। এখানেও উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছে। আজ অনেকগুলো প্রজেক্ট উদ্বোধন করেছি। এগুলো বরগুনার মানুষের জন্য আমাদের সরকারের উপহার।

শেখ হাসিনা বলেন, আমরা চাই একটি মানুষও গৃহহারা থাকবে না। দেশের মানুষ সুখী-সমৃদ্ধিশালী জীবন যাপন করবে। সারাবিশ্বে আমরা উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে সম্মান লাভ করেছি। এই উন্নয়ন ধরে রাখতে আরেকটিবার আওয়ামী লীগকে ভোট দিন, নৌকায় ভোট দিন।

এসময় তিনি জনসভায় উপস্থিত জনতার কাছে ওয়াদা চেয়ে বলেন, আপনারা ওয়াদা করুন, যাকেই আগামী নির্বাচনে নৌকা মার্কায় পাঠাবো, তাকেই ভোট দিয়ে নির্বাচিত করে আওয়ামী লীগকে দেশের সেবা করার সুযোগ দেবেন।

তখন উপস্থিত জনতা আওয়ামী লীগ সভাপতির সামনে হাত তুলে ওয়াদা করেন। জবাবে শেখ হাসিনা জনতাকে ধন্যবাদ জানান।

স্বাস্থ্য ও শিক্ষাখাতে তার সরকারের বিভিন্ন কর্মসূচির কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এখন সবার হাতে হাতে মোবাইল ফোন। এই সুযোগ আওয়ামী লীগ সবাইকে করে দিয়েছে। ডিজিটাল সেন্টার করে দিয়েছি, দেশজুড়ে ইন্টারনেট সার্ভিস আছে। এর মাধ্যমে ২০০ প্রকারের সেবা পাচ্ছে মানুষ। তালতলীর মতো দুর্গম এলাকায়ও মানুষ যোগাযোগ করতে পারে অনলাইনের মাধ্যমে। এটাকে আরও উন্নত করার জন্য মহাকাশে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করেছি। এর মাধ্যমে দুর্যোগের আগাম খবরসহ বিভিন্ন সেবা পাওয়া সম্ভব হবে।

জ্বালানি ও কৃষিখাতের উন্নয়নে আওয়ামী লীগ সরকারের প্রকল্পগুলোর কথাও উল্লেখ করেন শেখ হাসিনা বলেন, শুধু রাজধানীর মানুষ সুযোগ পাবে তা নয়, ইউনিয়ন এমনকি গ্রাম পর্যায় পর্যন্ত সবাই যেন নাগরিক সুবিধা পায় সেজন্য কাজ করেছি। ইন্টারনেট ব্যবহার করে যেন আয় করতে পারে, সেজন্য লার্নিং অ্যান্ড আর্নিংয়ের ট্রেনিং দিচ্ছি। এখন ঘরে বসেই বিদেশে কাজ করতে পারে। যুবকদের জন্য কর্মসংস্থান ব্যাংক করেছি। বিনা জামানতে ২ লাখ টাকা পর্যন্ত ঋণ পাচ্ছে।