শুকরানা মাহফিলে প্রধানমন্ত্রী-আহমেদ শফী

নিউজ ডেস্ক   ::       সোহরাওয়ার্দী  উদ্যানে কওমি মাদ্রাসার আলেমদের শুকরানা মাহফিলে যোগ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রোববার সকাল পৌনে ১১টার দিকে তিনি অনুষ্ঠানস্থলে উপস্থিত হন। অন্যদিকে হেফাজতে ইসলামের আমির শাহ আহমদ শফী সকাল সাড়ে ১০টার অনুষ্ঠানে উপস্থিত হন।

কওমি মাদ্রাসা শিক্ষার সর্বোচ্চ সনদ দাওরায়ে হাদিসকে (তাকমিল) সাধারণ শিক্ষার স্নাতকোত্তর ডিগ্রির সমান মর্যাদা দিতে অফিসিয়াল স্বীকৃতি দেয়ায় আজকের অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীকে সংবর্ধনা দেয়া হবে।

রোববার সকাল ৯টা থেকে কওমি মাদ্রাসাগুলোর সর্বোচ্চ সংস্থা ‘হাইআতুল উলয়ালিল জামিয়াতিল কওমি বাংলাদেশ’র ব্যানারে আয়োজিত মাহফিলে সভাপতিত্ব করছেন সংস্থাটির চেয়ারম্যান ও হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফী।

সকাল নয়টায় পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের মধ্যদিয়ে মাহফিল শুরু হয়। এর আগেই আলেমদের সমাগমে এক প্রকার জনসমুদ্রে পরিণত হয় সোহরাওয়ার্দী উদ্যান।

সকাল ৭টা থেকেই সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আসতে শুরু করেন কওমি মাদ্রাসার শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও আলেমরা। সকাল সাড়ে ৯টার দিকেই কানায় কানায় ভরে যায় উদ্যান এলাকা। এখন আশপাশের এলাকায়ও অবস্থান নিচ্ছেন কওমি শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

এদিকে সমাবেশকে ঘিরে সতর্ক অবস্থানে আছে পুলিশ ও নিরাপত্তা রক্ষার কাজে নিয়োজিত বাহিনীর সদস্যরা। অনুষ্ঠানের আগে জাতীয় দ্বীনি মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড, বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার চেয়ারম্যান শাইখুল হাদিস আল্লামা ফরিদ উদ্দীন মাসউদ আগেই ঘোষণা দিয়েছেন শোকরানা মাহফিলে ১০ লাখেরও বেশি মানুষ উপস্থিতির জন্য প্রস্তুতি রয়েছে। সরেজমিনে, অনুষ্ঠানস্থলে লক্ষ লক্ষ মানুষের সমাগম দেখা যাচ্ছে।

মর্নিংসান/এসএ