মর্নিংসান২৪ডটকম Date:০৪-১১-২০১৮ Time:১২:৪৩ অপরাহ্ণ


চট্টগ্রামনিউজ   ::     কর্ণফুলী নদীর রাঙ্গুনিয়া ও বোয়ালখালী উপজেলার শ্রীপুর-খরণদ্বীপ অংশের দুই তীর এবং রাঙ্গুনিয়া উপজেলার ইছামতি নদীর ভাঙন রোধে ৫০২ কোটি ৩৬ লাখ টাকার প্রকল্প হাতে নিয়েছে সরকার। এছাড়া কাপ্তাই লেকের ভাঙন রোধে রাঙামাটি শহরের ফিশারিঘাট থেকে পুরাতন বাসস্ট্যান্ড পর্যন্ত সংযোগ সড়ক বাঁধের উন্নয়ন ও সংরক্ষণের জন্য ১২৮ কোটি ৭৭ লাখ টাকা, রাঙামাটি জেলার কাপ্তাই লেকের অংশে কর্ণফুলী ও কাচালং নদীর বিভিন্ন স্থানে ভাঙন রোধে ১৬৫ কোটি ৩৯ লাখ টাকার পৃথক প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। ওই তিন প্রকল্পে প্রায় ৮০০ কোটি টাকা ব্যয় হবে।

রাঙ্গুনিয়া থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য ড. হাছান মাহমুদ তার নির্বাচনী এলাকার অংশে কর্ণফুলী নদী ও ইছামতি নদীর ভাঙন প্রতিরোধে নতুনভাবে প্রায় ৫০০ কোটি টাকার প্রকল্প হাতে নিয়েছেন। এর আগে তিনি পানি উন্নয়ন বোর্ডের মাধ্যমে প্রায় ৫০ কোটি টাকা ব্যয়ে নদী তীরে ব্লক বসিয়েছেন

স্থানীয়রা জানান, লুসাই পাহাড় থেকে নেমে আসা কালস্রোতের সমান্তরাল প্রবহমান কর্ণফুলী নদী গ্রাম জনপদের যুগ-যুগান্তরের কত ভাঙা-গড়া, উত্থান-পতন, মানুষের হাসি-কান্না ও আনন্দ-বেদনার নীরব সাক্ষী। সাবেক মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমপি বলেন, ‘২০০৮ সালে বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর কর্ণফুলী ও ইছামতি নদীর ভাঙন প্রতিরোধে প্রায় ৫০ কোটি টাকা ব্যয়ে ব্লক বসানো হয়েছে।

কর্ণফুলীর দুই তীরে রাঙ্গুনিয়া ও বোয়ালখালী উপজেলার শ্রীপুর-খরণদ্বীপ অংশে ভাঙন রোধ এবং রাঙ্গুনিয়ার আরেক খরস্রোতা নদী ইছামতির ভাঙনের কবল থেকে নদী তীরবর্তী মানুষকে রক্ষা করতে আরো ৫০০ কোটির বেশি টাকা ব্যয়ে নতুন প্রকল্প প্রস্তাবনা পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। ৫০২ কোটি ৩৬ লাখ টাকার প্রকল্পটি প্রি একনেকে অনুমোদন হয়েছে। শীঘ্রই একনেক সভায় অনুমোদন হলে কাজ শুরু হবে।’
চট্টগ্রামনিউজ/এসএ