মর্নিংসান২৪ডটকম Date:০৫-১১-২০১৮ Time:৫:৪১ অপরাহ্ণ


কক্সবাজারে অস্ত্রসহ ১০ জলদস্যু আটক

চট্টগ্রাম অফিস: কক্সবাজারের বঙ্গোপসাগর উপকূলে অভিযান চালিয়ে অস্ত্র ও গুলিসহ ১০ জলদস্যুকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।
এ সময় জলদস্যুদের কাছ থেকে ছয়টি অস্ত্র ও ৩৭ রাউন্ড গোলাবারুদ উদ্ধার করেছে র‌্যাব।

সোমবার ভোরে বঙ্গোপসাগরের উপকূল থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- মহেশখালীর কালারমারছড়া এলাকার মো. ইউনুছের ছেলে আব্দুল গফুর (২২), নূরুল আলমের ছেলে মো. জুয়েল (২৬), ছব্বির আহমদের ছেলে নুরুল হক (৩২), আবুল হোসেনের ছেলে সাইফুল ইসলাম (২৮), জাফর আহমদের ছেলে মোহাম্মদ তারেক (৩০), জালাল আহমদের ছেলে আবুল হোসেন (২৫), গোলাম হোসেনের ছেলে ছৈয়দুল ইসলাম (৩৫), কুতুবদিয়া উপজেলার কবির আহমদের ছেলে মো. করিম (২৫), ফজল করিমের ছেলে তাহের মিয়া (২৫) ও বান্দরবানের মোহাম্মদ আলীর ছেলে সিরাজুল ইসলাম (৪৫)।

র‌্যাব জানায়, রোববার রাত ১টার দিকে গভীর সাগরে দুটি মাছ ধরার ট্রলার ডাকাতি করে জলদস্যুরা। ডাকাতি শেষে জলদস্যুরা ওই দুই ট্রলারের তিনজন মাঝিমাল্লাকে অপহরণ করে। পরে জেলেদের কাছ থেকে অভিযোগ পেয়ে র‌্যাব সাগরে অভিযান চালিয়ে তিন মাঝিমাল্লাকে উদ্ধার করে। এ সময় ১০ জলদস্যুকে গ্রেফতার করা হয়। পরে জলদস্যুদের কাছ থেকে ছয়টি আগ্নেয়াস্ত্র এবং ৩৭ রাউন্ড গোলাবারুদ উদ্ধার করা হয়।

অপহরণের শিকার মাঝিমাল্লারা হলেন- মহেশখালী ঘটিভাঙা এলাকার আব্দুল মজিদ, রামুর নুরুল আলম ও সদরের চৌফলদন্ডী এলাকার বাচা রাখাইন।

সোমবার দুপুরে গ্রেফতারকৃত জলদস্যু ও অপহৃত মাঝিমাল্লাদের কক্সবাজার শহরের ৬নং ঘাটে নিয়ে আসে র‌্যাব। সেখান থেকে গাড়িতে করে র‌্যাবের কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয় তাদের।

র‌্যাব ৭-এর কক্সবাজার ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার মেজর মো. মেহেদী হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।