‘বিএনপি-জামায়াতের শাসনকালে সন্ত্রাস, দুর্নীতি আর লুটপাট হয়েছে’

আপনার মুখে এ রকম নোংরা ভাষা মানায় না: প্রধানমন্ত্রী
‘বিএনপি-জামায়াতের শাসনকালে সন্ত্রাস, দুর্নীতি আর লুটপাট হয়েছে’

নিউজ ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিএনপি-জামায়াতের শাসনকালে দেশে কোনো উন্নয়ন হয়নি। শুধু সন্ত্রাস, দুর্নীতি আর লুটপাট হয়েছে। লুটপাটের কারণেই বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া কারাগারে।

তিনি বলেন, বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া এতিমের টাকা লুটে খেয়েছেন। সেই লুটপাটের কারণে তিনি আজ কারাগারে। খালেদা জিয়ার এই দুর্নীতির মামলা কোনো রাজনৈতিক মামলা নয়। মামলা আমাদের সরকারও দেয়নি।

বৃহস্পতিবার বিকেলে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ঘাটে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী জনসভায় বক্তৃতাকালে এসব কথা বলেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা। এতে মানিকগঞ্জ-১ ও ২ আসনে নৌকার প্রার্থী নাঈমুর রহমান দুর্জয় ও মমতাজ বেগমকে পরিচয় করিয়ে দেন আওয়ামী লীগ সভাপতি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০১৪ সালে নির্বাচন ঠেকানোর নামে বিএনপি-জামায়াত জীবন্ত মানুষকে পুড়িয়ে মেরেছিল। পাঁচশ’র মতো মানুষ তারা পুড়িয়ে হত্যা করেছে। কোনো সুস্থ মানুষ এভাবে জীবন্ত মানুষকে পুড়িয়ে মারতে পারে, এটা আমার জানা নেই। মানুষ পুড়িয়ে মারা, সন্ত্রাস, ভাঙচুর, আর ধ্বংস ছাড়া তারা আর কিছুই করেনি।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমরা সারাদেশে উন্নয়ন করেছি, উন্নয়ন করে যাচ্ছি। দেশের এই উন্নয়ন কর্মকাণ্ড অব্যাহত রাখতে চাইতে আপনারা নৌকায় ভোট দিন।’

তিনি বলেন, আগামীতে ভোটে জয়যুক্ত হয়ে সরকার গঠন করতে পারলে কোনো ঘর অন্ধকারে থাকবে না। সবার ঘরে ঘরে আমরা বিদ্যুৎ পৌঁছে দেবো। মানিকগঞ্জে একটি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল করে দেবো। পদ্মাসেতুর কাজ চলছে। ওই পদ্মাসেতুর কাজ শেষ হওয়ার পর দ্বিতীয় পদ্মাসেতু করে দেবো, যেন আপনাদের যাতায়াতে সুবিধা হয়।

এসময় প্রধানমন্ত্রী আসন্ন নির্বাচনে নৌকা মার্কার প্রার্থী নাঈমুর রহমান দুর্জয়, মমতাজ বেগমকে পরিচয় করিয়ে দিয়ে বলেন, মানিকগঞ্জে অনেক মানিক আছে, আমরা এ দু’জনকে বেছে নিয়েছি। আপনারা তাদের ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করুন।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী টুঙ্গিপাড়া থেকে ঢাকায় ফেরার পথে ফরিদপুরের ভাঙ্গা, কোমরপুর ও রাজবাড়ীর দৌলতদিয়ায় তিনটি নির্বাচনী জনসভায় বক্তব্য রাখেন। এসময় রাস্তার দু’পাশে হাজারো মানুষ হাত নেড়ে স্লোগান দিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে অভিবাদন জানান। নগরকান্দায় গাড়ি থেকে নেমে হাত নেড়ে জনতার অভিবাদন গ্রহণ করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি।