চোরাইপথে আমদানি করা ফার্নেস অয়েল ট্যাংকার জব্দঃ আটক দুইজন

নগরের পাঁচলাইশ থানাধীন শুলকবহর এলাকা থেকে শুল্ক ফাঁকি দিয়ে চোরাইপথে আমদানি করা ৯ হাজার লিটার ফার্নেস অয়েলসহ ট্যাংকার জব্দ করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। এসময় দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়।

শনিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ২টার দিকে শুলকবহর ফ্লাইওভারের মুখ থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয় বলে জানান র‌্যাব-৭ এর সহকারী পুলিশ সুপার কাজী মোহাম্মদ তারেক আজিজ।

গ্রেফতার দুইজন হলেন- কর্ণফুলী থানার চরপাথরঘাটা এলাকার আবদুল মোনাফের ছেলে রিজুয়ানুল ইসলাম (৩৫) ও পাহাড়তলী থানার সরাইপাড়া এলাকার ফয়েজ আহমদের ছেলে মো. রহমান (৩৪)। এদের মধ্যে রিজুয়ানুল ইসলাম এসব চোরাই ফার্নেস অয়েলের মালিক পক্ষের লোক ও মো. রহমান ফার্নেস অয়েলবাহী ট্যাংকারের চালক।

ফার্নেস অয়েলবাহী ট্যাংকার। র‌্যাব-৭ এর চান্দগাঁও ক্যাম্প কমান্ডার মেজর মো. শামীম সরকার বলেন, শুল্ক ফাঁকি দিয়ে চোরাইপথে আমদানি করা ৯ হাজার লিটার ফার্নেস অয়েলসহ দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তেল বহনকারী একটি ট্যাংকার জব্দ করা হয়েছে।

মেজর মো. শামীম সরকার বলেন, বিদেশ থেকে চোরাইপথে আনা এসব তেল কর্ণফুলী এলাকা থেকে সীতাকুণ্ড এলাকায় বিক্রির জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল বলে জানিয়েছে আসামিরা। দীর্ঘদিন ধরে তারা শুল্ক ফাঁকি দিয়ে চোরাইপথে এসব তেল নিয়ে এসে বাংলাদেশে বিক্রি করে আসছিল। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত পলাতক আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।