করোনা ভাইরাসে মারা গেলে দাফন করবে চসিক-ইফা

দুর্ভাগ্যবশত করোনা সন্দেহে চট্টগ্রামে কেউ মারা গেলে দাফন ও দাহ করার দায়িত্ব চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) এবং ইসলামিক ফাউন্ডেশনের (ইফা)।

মঙ্গলবার ( ৩১ মার্চ) দুপুরে চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন সেখ ফজলে রাব্বি এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, গত রোববার করোনা মোকাবেলায় চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের আহ্বানে সরকারি বিভিন্ন দফতরের প্রতিনিধিদের বিশেষ সমন্বয় সভায় বেশ কিছু উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। এতে চট্টগ্রামে করোনা পরিস্থিতি এবং পরবর্তী করণীয় ঠিক করা হয়।

তিনি বলেন, করোনায় যদি চট্টগ্রামে কেউ মারা যায় সেক্ষেত্রে প্রশাসনের কী করণীয় হবে তাও ঠিক করা হয়েছে। যদি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত কোনো ব্যক্তির মৃত্যু হয় তাহলে তাকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশিত পন্থা অনুযায়ী দাফন বা দাহ করার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

চট্টগ্রামে এমন পরিস্থিতি সৃষ্টি হলে সিটি করপোরেশন দাফন বা দাহ করার দায়িত্ব পালন করবে। এ ছাড়া ইসলামিক ফাউন্ডেশনকে বলা হয়েছে লোক তৈরি রাখার জন্য।

জানা গেছে, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী মারা গেলে যার যার ধর্মীয় রীতিতে সৎকার করাসহ বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত হয়েছে সভায়। এ জন্য নগরের বায়েজিদ বোস্তামি থানার আরেফিননগরে একটি খালি জায়গা ঠিক করা হয়েছে করোনা আক্রান্ত মরদেহ দাফন করার জন্য।

এ ছাড়া অন্য ধর্মাবলম্বীদের বিষয়ে সিটি করপোরেশন সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেবে। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত মরদেহ কবর দেওয়ার জন্য প্রশিক্ষিত চারজন থাকবে।

যারা মৃতের গোসলসহ অন্যান্য সব কাজ করবেন। তারা যাতে সুরক্ষিত থাকেন সেবিষয়টিও আলোচনায় আনা হয় সভায়।