করোনাভাইরাস: শনাক্ত ৩৫, মৃত ৩ স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

দেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ পর্যন্ত দেশে মোট মৃত্যু হয়েছে ১২ জনের। যদিও এর আগে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানিয়েছিলেন, এ সময়ের মধ্যে চার জনের মৃত্যু হয়। নতুন করে ৩৫ জন করোনা রোগী শনাক্ত করা গেছে। এ নিয়ে দেশে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১২৩।

সোমবার (০৬ এপ্রিল) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অনলাইন ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানানো হয়।

সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা বলেছেন, গত ২৪ ঘণ্টায় তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। আর নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৫ জন। এ পর্যন্ত ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত হয়েছেন ১২৩ জন। ৩৩ জনের পরে নতুন করে আর কেউ সুস্থ হয়ে ওঠেনি।

এদিকে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর দেওয়া করোনা বিষয়ে শনাক্ত এবং মৃত্যু সম্পর্কিত তথ্যের সঙ্গে আইইডিসিআরের দেওয়া তথ্যের মিল না থাকায় ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের মুখে পড়েন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ। তিনি বলেন, স্বাস্থ্যমন্ত্রী সে মুহূর্তে যে তথ্য দিয়েছিলেন তখন তা ঠিক ছিল।

ওখানে একটি প্রোগ্রাম চলছিল। আমিও ছিলাম। তথ্যটি মন্ত্রীমহোদয়কে আমি দিয়েছি। এক-দেড় ঘণ্টা আগে সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী আমি উনাকে এই তথ্য দিয়েছিলাম।

মিটিংয়ে বক্তৃতার সময় আইইডিসিআরে ফোন দিয়ে জানতে চাওয়া হয়। সেসময় একটি নামের বানানের ভুল থাকার কারণেই এই ধরনের ভুলটা হয়েছে।

পরে যাচাই বাছাইয়ের মাধ্যমে জানা যায় এই দুইটা নামই এক ব্যক্তির ছিল। এখন যে তথ্যটা আমরা দিয়েছি, এটা যাচাই-বাছাই শেষে দেওয়া হয়েছে। এটাই সঠিক। আগের তথ্যটাও আইইডিসিআর দিয়েছিল এবং এই তথ্যটাও আইইডিসিআর দিয়েছে।

এতে বিভ্রান্তি হওয়ার কিছুই নেই। আমাদের এই বক্তব্যের পরে সব বিভ্রান্তির অবসান ঘটবে বলে মনে করি।’