এগিয়ে চলার নবম বছর

শিক্ষার জন্য এসো সেবার জন্য ছড়িয়ে পড় এই স্লোগান কে হৃদয়ে ধারণ করে ২০১২ সালে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত একঝাঁক তরুন প্রতিষ্ঠা করে বোয়ালখালী ফ্রেন্ডস্ এসোসিয়েশন নামক একটি সেচ্ছাসেবী সংগঠন। সংগঠনটি সম্পূর্ণ অরাজনৈতিক, সেচ্ছাসেবী, সামাজিক সংগঠন। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে সংগঠনটি সমাজের বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক, সামাজিক, ধর্মীয় ও শিক্ষামূলক কাজ করে যাচ্ছে যা বর্তমানে বেশ প্রশংসনীয়। দেখতে দেখতে সংগঠনটি ৮ম বছর পেরিয়ে ৯ম বছরে পদার্পণ করছে। দীর্ঘ এই পথচলায় বোয়ালখালী ফ্রেন্ডস্ এসোসিয়েশনের সকল সদস্য, উপদেষ্টা, শিক্ষক, শিক্ষার্থী, শুভাকাঙ্ক্ষী ও শুভানুধ্যায়ী’সহ সকল কে প্রাণঢালা অভিনন্দন।

এক অভিনন্দন বার্তায় সংগঠনের সভাপতি মোঃ বেলাল হোসেন বলেন বোয়ালখালী ফ্রেন্ডস্ এসোসিয়েশন ৮ম বছর অতিক্রম করে ৯ম বছরে পদার্পণ করাই সংগঠনের সাথে সংশ্লিষ্ট সকলে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা করছি এবং তিনি আশা প্রকাশ করেন অতীতের ন্যায় সকলের সহযোগিতা ও ভালবাসা অব্যাহত থাকবে। তিনি এসময় সমাজের সচেতন নাগরিদদের সংগঠনের মানবিক কাজে সহায়তা করার আহবান জানান।

এক অভিনন্দন বার্তায় সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক শাহরিয়ার মুনির জিসান বলেন, বিগত ৮ বছর ধরে মানবিক দৃষ্টিকোণ থেকে বোয়ালখালী ফ্রেন্ডস্ এসোসিয়েশন যা করে যাচ্ছে তা সমাজে বিরল। তিনি চলমান কার্যক্রম বেগবান করার পাশাপাশি সংগঠনের উত্তর উত্তর সাফল্য কামনা করেন।

প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে অসহায় দরিদ্র শিক্ষার্থী যারা টাকার অভাবে শিক্ষার সুযোগ থেকে বঞ্চিত তাদের বিনামূল্যে পাঠদানসহ প্রতিমাসে  শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করে আসছে।যা বর্তমান সমাজে খুব বিরল। প্রতি মাসে বি.এফ.এ কোচিং এর মাধ্যম প্রায় ৭০ জন শিক্ষার্থী কে বিনামূল্যে পাঠদান করে আসছে। এই পর্যন্ত  প্রায় ৬০০ জন শিক্ষার্থী বি.এফ.এ কোচিং হোমে বিনামূল্যে পাঠ গ্রহণের সুযোগ পাই। প্রতি মাসে কোচিং পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের সম্পূর্ণ বিনামূল্যে শিক্ষা উপকরণ হিসেবে বিতরণ করা হয় খাতা ও কলম।এই কোচিং এ পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের মধ্যে পাসের হার প্রায় শতভাগ। অনেকে গোল্ডেন এ প্লাস পেয়ে প্রাচ্যের অক্সফোর্ড খ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের বিভিন্ন সুনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত আছে। প্রেসিডেন্ট এওয়ার্ডসহ অনেকে বিভিন্ন পুরস্কার অর্জন করে উক্ত প্রতিষ্ঠানকে গৌরবান্বিত করে। উক্ত প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের  বিনা পারিশ্রমিকে শিক্ষা দিয়ে আসছে সংগঠনের সদস্যবৃন্দ।

পরবর্তীতে ধর্মীয় ও নৈতিক শিক্ষা প্রসারের লক্ষ্যে প্রতিষ্ঠা করা হয় বি.এফ.এ কোরআন ও নৈতিক শিক্ষা নিকেতন যেখানে  সুবিধা বঞ্চিত শিক্ষার্থীরা বিনামূল্যে ধর্মীয় ও নৈতিক শিক্ষা পেয়ে থাকে।একজন সুদক্ষ আরবি শিক্ষক দ্বারা পাঠদান করা হয়। শিক্ষা উপকরণ সমূহ সংগঠন থেকে পপ্রদান করা হয়।

এছাড়া আমরা অনুধাবন অরি সঠিক ভাবে বেড়ে উঠতে  প্রতিটি শিক্ষার্থীদের শিক্ষার পাশাপাশি কিছুটা বিনোদন প্রয়োজন। সেই লক্ষ্যে আমরা প্রতিষ্ঠা করি বি.এফ.এ খেলাঘর যাতে প্রতিটা শিক্ষার্থী খেলাধুলার মাধ্যমে কিছুটা সময় বিনোদনের সাথে কাটাই।

সমাজের সর্বস্তরের মানুষের জ্ঞানের পিপাসা মিটানোর লক্ষ্যে আমরা প্রতিষ্ঠা করি একটি উন্মুক্ত পাঠাগার। যেখানে সর্বস্তরের মানুষ তাদের জ্ঞানে ক্ষুধা নিবারণ করতে পারে।

এছাড়া আর্থিক অসচ্ছল শিক্ষার্থীদের আর্থিক সহায়তা প্রদান করে এবং সংগঠনের প্রতিটি সদস্য রক্ত প্রদান করে আসছে।

বর্তমান চলমান মহামারীতেও বোয়ালখালী ফ্রেন্ডস্ এসোসিয়েশন নিজেদের সর্বোচ্চটুকু দিয়ে অসহায় মানুয়াশের পাশে এগিয়ে এসেছে।

আমাদের পরিচালিত প্রতিষ্ঠান সমূহ :

১.বি.এফ.এ কোচিং হোম
২.বি.এফ.এ কোরআন ও নৈতিক শিক্ষা নিকেতন
৩.বি.এফ.এ পাঠাগার
৪.বি.এফ.এ খেলাঘর

ভবিষ্যৎ  লক্ষ্যমাত্রা:

১.একটি ব্লাড ব্যাংক প্রতিষ্ঠা করা।
২.স্বাস্থ্য সচেতনতা ক্যাম্প বাস্তবায়ন ও বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা।
৩.বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচি বাস্তবায়ন করা।