ভাত খাওয়ার পরে যা করলে ভয়ঙ্কর ক্ষতি

ভাত খাওয়ার পর আমরা অনেকেই অনেক ধরনের কাজ করে থাকি,  এর মধ্যে কিছু কিছু কাজ আমাদের শরীরের জন্য ভয়ঙ্কর ক্ষতির কারণ হয়ে দাড়ায়। নিজের অজান্তেই আমরা নিজের ক্ষতি করে ফেলি। তাই ভাত খাওয়ার পর কিছু কাজ করা থেকে বিরত থাকতে হবে। আসুন এবার জেনে নেই ভাত খাওয়ার পর কোন কোন কাজ করা থেকে বিরত থাকতে হবে-

১। স্বাস্থ্য সচেতনতার জন্য অথবা মুখের স্বাদের জন্য আমরা অনেকেই ভাত খাওয়ার পর ফল খেয়ে থাকি। এই কাজ করছেন তো নিজেই নিজের ক্ষতি করছেন।  ভাত খাওয়ার পর অন্তত দু/এক ঘন্টা পর ফল খাওয়া ভালো, খাওয়ার পরপরই ফল খেলে গ্যাসের সমস্যা হতে পারে।

২। পেট পুরে ভাত খাওয়ার পর অনেকেই দৌড়ে সিগারেটের দোকানে চলে যান, কেওবা ঘরে বসেই সিগারেট খাওয়া শুরু করেন, আপনি হয়তো জানেন না খাওয়ার পর সিগারেটা খাওয়া সবচেয়ে ক্ষতিকর। এতে ১০ গুণ ক্ষতি বেশি হয়।

৩। খাওয়ার আগে শরীর দুর্বল লাগে কিংবা অভ্যাস বশতো অনেকেই খাবার গ্রহণের পর মনের আনন্দে স্নান করতে যান, খাওয়ার পরপরই স্নান করলে শরীরের রক্ত সঞ্চালন মাত্রা বেড়ে যায়। এর ফলে পাকস্থলির চারপাশের রক্তের পরিমাণ বেড়ে যায়। যা পরিপাকতন্ত্রকে দুর্বল করতে পারে। ফলে খাবার হজমের স্বাভাবিক সময়কে ধীরগতি করে দেয়। তাই খাওয়ার পরপরই স্নান করবেন না।

৪. খাওয়া খেতে বসে কিংবা নিজের বাসায় খাবার গ্রহণের সময় কিংবা খাওয়ার পরপরই অনেকে কোমরের বেল্ট কিংবা কাপড় ঢিলা করে দেয়। এটাও কিন্তু একদমই ঠিক নয়। কারণ কোমরের বেল্ট বা কাপড় ঢিলা করলে খুব সহজেই ইন্টেসটাইন (পাকস্থলি) থেকে রেক্টাম (মলদ্বার) পর্যন্ত খাদ্যনারীর নিম্নাংশ বেকে যেতে পারে বা পেঁচিয়ে যেতে পারে বা ব্লক হয়ে যেতে পারে। এ সমস্যাকে ইন্টেসটাইনাল অবস্ট্রাকশন বলে। তাই ভুল করে হলেও এই কাজ আর করবে না।

৫. খাবার পরপরই ব্যয়াম করলেও শরীরে নানা রকম সমস্যা দেখা দিতে পারে তাই খাওয়ার পরপরই ব্যায়াম করবে না।
৬. খাওয়ার পরপরই কারো চোখে রাজ্যের ঘুম চলে আসে? কেউ খাওয়া শেষ করেই ঘুমানোর জন্য তাড়াহুড়ো শুরু করেন, ভাত খাওয়ার পরপরই ঘুমিয়ে পড়া খুবই খারাপ অভ্যাস। এর ফলে শরীরে মেদ জমে যায়। শরীরে মেদ জমাতে না চাইলে খাওয়ার পরপরই ঘুমাবে না।

৭। চা খাওয়ারও কিন্তু নিদিষ্ট কিছু সময় আছে, ভুল সময়ে খেলে নিজের ক্ষতি নিজেই করবেন। এমন অনেকেই আছেন যারা খাবার পরেই চা খান। এটি একেবারেই ঠিক নয়। চায়ের টেনিক এসিড খাদ্যের প্রোটিনকে ১০০ গুণ বাড়িয়ে তোলে। তাই একটু অপেক্ষার পর চা পান মঙ্গলজনক।

৮। আমাদের সমাজে এমনও লোক আছে যারা খাবার পরই হাঁটা শুরু করে দেন। খাবার সঙ্গে সঙ্গেই হাঁটা ঠিক নয়। কিছুক্ষণ পর থেকে হাঁটলে ভালো।