বিশ্বে একদিনে সর্বোচ্চ করোনা আক্রান্ত

বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের মানুষ স্বাভাবিক জীবনে প্রবেশের চেষ্টা করলেও কাটেনি করোনার আতঙ্ক। প্রতিনিয়ত নতুন নতুন রেকর্ড তৈরি করছেন ভাইরাসটি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) নতুন খবর, শুক্রবার বিশ্বজুড়ে একদিনে সর্বোচ্চ ২ লাখ ২৮ হাজার ১০২ জন কোভিড-19 পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন।

বিশ্ব স্বাস্থ্য বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে যে সোয়া দুই লাখের বেশি রোগী শনাক্ত হয়েছে। উল্লেখযোগ্য সংখ্যক সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে কয়েকটি দেশে। এরমধ্যে রয়েছে শীর্ষ সংক্রমিত তিন দেশ যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিল এবং ভারত। তালিকায় আরেকটি নাম হলো দক্ষিণ আফ্রিকায়। দেশটিতে দ্রুত সংক্রমণ বাড়ছে।

চলতি জুলাই মাসে বিশ্বজুড়ে করোনা সংক্রমণের হার বেড়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও বলছে, বিশ্বজুড়ে করোনা পরিস্থিতির দিনে দিনে অবনতি ঘটছে। আরও দ্রুত বিস্তার ঘটাচ্ছে মহামারি এই ভাইরাস। তাই বিশ্বের সরকারগুলোকে করোনা প্রতিরোধে আরও কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে সংস্থাটি।

ডব্লিউএইচও’র দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, এতদিন পর্যন্ত সর্বোচ্চ সংক্রমণের রেকর্ড হয়েছিল গত ৪ জুলাই। ওইদিন বিশ্বজুড়ে সর্বোচ্চ ২ লাখ ১২ হাজার ৩২৬ জন কোভিড-19 পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হন। এরপর তা আরও বাড়ছেই। তবে দৈনিক মৃত্যুর গড় হার পাঁচ হাজারের নিচে রয়েছে।

বিশ্বজুড়ে সংক্রমণের সঙ্গে তুলনায় মৃত্যু অতটা না বাড়লেও মৃত্যুর সংখ্যা একটু একটু করে বাড়তির দিকে যাচ্ছে বলে মনে হচ্ছে। গত জুনেও দৈনিক গড়ে দেড় লাখের কম রোগী শনাক্ত হয়েছে, মারা গেছেন সাড়ে ৪ হাজারের কিছু বেশি।

তবে ইতোমধ্যে বাতাসের মাধ্যমেও করোনাভাইরাস ছড়ানোর ‘প্রমাণ’ যে আসতে শুরু করেছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা তা স্বীকার করেছে অবশেষে।

শনিবার সকালে বিশ্বখ্যাত জরিপ সংস্থা ওয়াল্ডোমিটার বলছে, বিশ্বে এখন পর্যন্ত মোট করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়, ১ কোটি ২৬ লাখ ২৫ হাজার ১৫৫ জন, মারা গেছেন ৫ লাখ ৬২ হাজার ৭৬৯ জন, সুস্থ হয়েছেন ৭৩ লাখ ৬০ হাজার ৯৫৪ জন। এছাড়া আক্রান্তের তালিকায় প্রথম পাঁচে আছে যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিল, ভারত, রাশিয়া, পেরু।