শহীদ তবারকদের রক্তে নির্মিত হয়েছে আজকের ছাত্রলীগের মসৃন পথ: আ জ ম নাছির উদ্দীন

জয়নাল আবদিন নাইমন, স্টাফ রিপোর্টার: চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বপরিবারে হত্যার পর স্বাধীনতা বিরোধী চক্র নানা অপচেষ্টার মধ্য দিয়ে এদেশে জঙ্গিবাদ মৌলবাদ ও সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করতে শুরু করে। চটগ্রামের শিক্ষাঙ্গনে জামায়াত শিবিরের দুর্গ গড়ে তুলতে তারা ছাত্রলীগ নিশ্চিহ্নের মিশন চালায়।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোতে ছাত্রলীগের ঝান্ডা বহনকারী নেতাকর্মীদের উপর শুরু হয় জেল জুলুম হত্যা আর হুলিয়া। তাদের বর্বর হত্যা মিশনে শহীদ হন একের পর এক ছাত্রলীগ নেতা। আমাদের প্রজন্মের ছাত্রলীগ নেতা চট্টগ্রাম সরকারি সিটি কলেজ ছাত্রলীগের তৎকালীন সহ সাধারণ সম্পাদক তবারক হোসেনও জামায়াত শিবির চক্রের নিষ্ঠুর হত্যাকান্ডের শিকার হয়েছিলেন। শহীদ তবারক হোসেন ছিলেন দেশপ্রেম ত্যাগ তিতিক্ষা আর নিবেদনের অনন্য দৃষ্টান্ত। ছাত্র রাজনীতির বন্ধুর পিচ্ছিল পথে হাঁটতে গিয়ে নিজের জীবন পর্যন্ত বিলিয়ে দিয়ে গেছেন তবারক হোসেন। শহীদ তবারক হোসেনদের রক্তের বিনিময়ে নির্মিত হয়েছে আজকের ছাত্রলীগের মসৃন পথ।

আজ ২০ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় নগরীর কদম মোবারক তারাবানু ভবনের সম্মেলন কক্ষে শহীদ তবারক হোসেনের ৩৯তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শহীদ তবারক হোসেন স্মৃতি সংসদ আয়োজিত এই দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

শহীদ তবারক হোসেন স্মৃতি সংসদের সভাপতি দক্ষিন জেলা আওয়ামী লীগের শ্রম সম্পাদক খোরশেদ আলমের সভাপতিত্ব ও সাধারণ সম্পাদক মো জসিম উদ্দিন চৌধুরীর সঞ্চালনায় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, কেন্দ্রীয় শ্রমিক লীগ সহসভাপতি শফর আলী, নগর আওয়ামী লীগ উপদেষ্টা শেখ মোহাম্মদ ইছহাক, নগর আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী, সাবেক কাউন্সিলর কফিল উদ্দিন খান, হাসান মুরাদ বিপ্লব। এতে স ম জিয়াউর রহমান, সজল দাস, সিটি কলেজ সাবেক সাধারন সম্পাদক নোমান লিটন, দক্ষিন জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি জিয়াউদ্দিন আরিফ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।