ম্যাক্রোঁর মন্তব্য শুনে ফ্রান্সের হয়ে খেলার ‘ইচ্ছা নেই’ পগবার

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর ইসলাম বিদ্বেষী মন্তব্যর জেরে জাতীয় দল থেকে অবসরের সিদ্ধান্ত নিতে চলেছেন মুসলিম ফুটবলার পল পগবা। এমনটাই সংবাদ প্রকাশ করেছে ইউরোপিয়ান গণমাধ্যমগুলো।

যুক্তরাজ্যের প্রভাবশালী দৈনিক দ্য সান মধ্যপ্রাচ্য ভিত্তিক ওয়েবসাইট ওয়ান নাইনটি ফাইভ স্পোর্টসের বরাতে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

এতে বলা হয়েছে, গেল শুক্রবার ম্যাক্রোঁ তার বক্তব্যে ইসলাম ও মুসলিমদের প্রতি আরও আক্রমণাত্মক মন্তব্য করেন। ফ্রেঞ্চ প্রেসিডেন্টের এমন বক্তব্যের পরই দেশটির হয়ে বিশ্বকাপ জয়ী তারকা পগবা জাতীয় দলের হয়ে না খেলার সিদ্ধান্ত নিতে চলেছেন।

সাড়ে পাঁচ বছর আগে হজরত মুহাম্মদ (সা.) বিতর্কিত ব্যঙ্গচিত্র ছাপানোর পর ফ্রেঞ্চ ম্যাগাজিন শার্লি এবদোর অফিসে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটে। কয়েকদিন আগে সেটি ছাপিয়েছে ম্যাগাজিনটি।

সম্প্রতি বাক স্বাধীনতার শিক্ষা দিতে গিয়ে ক্লাসে মহানবী (সা.)-র ব্যঙ্গচিত্র দেখান এক স্কুল শিক্ষক। এরপর ওই স্কুলের সামনে তাকে মাথা কেটে হত্যা করা হয়।

গেল শুক্রবার হত্যাকাণ্ডের শিকার শিক্ষকের স্মরণে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানে ম্যাক্রোঁ বলেন, আমরা ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশ বন্ধ করবো না।

‘ধর্মনিরপেক্ষ ফ্রেঞ্চ জাতীয়তাবাদ’-এর বিপরীতে ‘ইসলামি বিচ্ছিন্নতাবাদী’দের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যেতে হবে বলে জানান প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ। তিনি বলেন, ‘এই বিচ্ছিন্নতাবাদ ফ্রান্সের মুসলমান সম্প্রদায়গুলোতে নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করতে চাইছে।’

প্রতিবেদন বলা হয়েছে, ফ্রান্সে খ্রিস্টান ধর্মের দ্বিতীয় বৃহৎ ধর্ম ইসলাম। পল পগবা মনে করেন এমন বক্তব্য তাকে, ‘জাতীয় দলের হয়ে খেলতে নিরুৎসাহিত করছে।’

যদিও পল পগবা ও ফ্রান্স জাতীয় ফুটবল দলের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছুই জানানো হয়নি।

২০১৩ সালে ফ্রেঞ্চ জাতীয় দলের হয়ে অভিষেক হয় ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের এই তারকা মিডফিল্ডারের। ক্যারিয়ারে জুভেন্টাসের মতো দলের হয়ে খেলেছেন। জাতীয় দলের হয়ে ৭২ ম্যাচে ১০ গোল দিয়েছেন ২৭ বছর বয়সী পগবা। ২০১৮ সালের বিশ্বকাপ জয়ী দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি।

এদিকে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনীর প্রতিবাদে ফ্রান্সের পণ্য বয়কট করা শুরু হয়েছে বিশ্বের অনেক দেশে।