আরিফিন শুভকে বাবা বলে ডাকলেন প্রধানমন্ত্রী

বাংলাদেশ ও ভারতের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত হচ্ছে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনী নিয়ে সিনেমা ‘বঙ্গবন্ধু’। এ সিনেমায় কেন্দ্রীয় চরিত্রে অর্থাৎ বঙ্গবন্ধু হতে যাচ্ছেন দেশের জনপ্রিয় চিত্রনায়ক আরিফিন শুভ। সিনেমাটির শুটিংয়ের জন্য আগামী ১৯ জানুয়ারি মুম্বই যাচ্ছেন শুভ। তবে এর আগে সিনেমার প্রধান প্রধান চরিত্রগুলোর সঙ্গে গতকাল (৯ জানুয়ারি) দুপুরে বসে ছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বঙ্গবন্ধু কন্যার ডাকে তার বাসভাবনে ছুটে গিয়েছিলেন শুভসহ আরও অনেকে। সেখানে ছিলেন- নুসরাত ইমরোজ তিশা, নুসরাত ফারিয়া, দিঘীসহ বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করা আরও অনেকেই।

এ বিষয়ে আরেফিন শুভ জানান, মূলত শুটিংয়ে যাওয়ার আগে শুভকামনা জানানোর জন্য এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বাবার (বঙ্গবন্ধু) জীবনের গল্প ব্রিফ করার জন্য আমাদের ডাকা হয়েছিল। প্রধানমন্ত্রীর বোন শেখ রেহানাও সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করা প্রসঙ্গে শুভ বলেন, ‘আজকে আমার অতীতের কথা মনে পড়ে গেলো। ২৫৭ টাকা নিয়ে ঢাকায় এসেছিলাম, কখনও ভাবিনি প্রধানমন্ত্রী নাম ধরে ডাকবেন। প্রায় তিন-চার ঘন্টা থাকার পর যখন তিনি (প্রধানমন্ত্রী) চলে যাচ্ছিলেন, আমি দূরে দাড়িয়েছিলাম। সামনে থেকে সবাই বিদায় জানাচ্ছিল। আমি দূর থেকে ওনাকে দেখছিলাম। হঠাৎ তিনি খোঁজ করলেন। বললেন, আমার আব্বা কোথায়? তখন আমি এগিয়ে গেলাম। সালাম দিলাম। খোদা হাফেজ বললাম। এটা মনে থাকবে আজীবন।’

শুভ আরও জানান, ১৯ জানুয়ারি মুম্বই যাওয়ার পর ছয় দিনের কর্মশালায় অংশ নিবেন। তারপর ১০ এপ্রিল পর্যন্ত টানা শুটিং করবেন।

‘বঙ্গবন্ধু’ শিরোনামের এই সিনেমাটি নির্মাণ করছেন প্রখ্যাত ভারতীয় চলচ্চিত্র পরিচালক শ্যাম বেনেগাল। চিত্রনাট্য লিখেছেন অতুল তিওয়ারি ও শামা জায়েদি এবং শিল্প নির্দেশনায় রয়েছেন নীতিশ রায়। কস্টিউম পরিচালক হিসেবে থাকছেন পরিচালক শ্যাম বেনেগালের মেয়ে পিয়া বেনেগাল।

মুজিববর্ষ উপলক্ষে বাংলাদেশ ও ভারতের যৌথ প্রযোজনায় তৈরি হচ্ছে সিনেমাটি। গত মার্চে বাংলাদেশে এর শুটিং শুরু হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু, করোনা মহামারির কারণে সেটা সম্ভব হয়নি।