কক্সবাজারে ১৪ লাখ ইয়াবাসহ বস্তাভর্তি টাকা উদ্ধার

কক্সবাজারে ১৪ লাখ পিস ইয়াবাসহ আটক ফারুকের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে প্রায় পৌনে দুই কোটি টাকা জব্দ করেছে পুলিশ।

আজ মঙ্গলবার বিকেলে ৫টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত শহরের নুনিয়ারছড়ার ফারুকের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ইয়াবা বিক্রির এক কোটি ৭০ লাখ ৬৩ হাজার ৫০০ টাকা জব্দ করা হয়।

কক্সবাজারের পুলিশ সুপার মো. হাসানুজ্জামান আজ রাতে এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, ১৪ লাখ ইয়াবাসহ আটক জহিরুল ইসলাম ফারুককে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তিনি তাঁর বাড়িতে ইয়াবা বিক্রির বিপুল টাকা রাখার কথা স্বীকার করেন। তাঁর দেওয়া তথ্যমতে অভিযান চালিয়ে তাঁর বাড়ি থেকে দুই বস্তাভর্তি টাকা জব্দ করা হয়।

পুলিশ সুপার আরো জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কক্সবাজার জেলা পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের কয়েকটি দল গতকাল মধ্যরাত থেকে অভিযানে নামে। ইয়াবার একটি বড় চালান মিয়ানমার থেকে সমুদ্রপথে কক্সবাজার শহরের দিকে আসার সংবাদ পেয়ে তারা বিভিন্ন জায়গায় ছদ্মবেশে ওৎ পেতে থাকে। আজ মঙ্গলবার দুপুর ২টার দিকে চৌফলদণ্ডী সেতুর কাছে নৌঘাটে অভিযান চালিয়ে সবচেয়ে বড় ইয়াবার চালান জব্দ করা হয়। এ সময় আটক করা হয় জহিরুল ইসলাম ফারুক ও বাবু নামের দুজনকে। পরে এ ঘটনায় জড়িত আরো তিনজনকে আটক করা হয়েছে। তাদের মধ্যে দুজনের নাম জানা গেছে। তারা হলেন ফারুকের শ্বশুর মোহাম্মদ আলী ও শ্যালক শেখ আব্দুল্লাহ।

ইয়াবা এবং টাকা জব্দের ঘটনায় আটক এ চক্রের সদস্যদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বল জানান পুলিশ সুপার।