রামগঞ্জে এক প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

Ramgonj News Bikkhob Michil 11---1--2015মোঃ ছায়েদ হোসেন, রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি : জেলার রামগঞ্জ উপজেলায় কাঞ্চনপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে গত তিন দিন থেকে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে সুনিদিষ্ট কয়েকটি অভিযোগসহ বিভিন্ন অনিয়মের কারনে শিক্ষার্থীরা ক্ষীপ্ত হয়ে ক্লাস বর্জন করে মাথায় লাল ব্যাচ ধারন করে স্কুল প্রাঙ্গনে বিক্ষোভ মিছিল অব্যাহত রেখেছে। এদিকে ঘটনাটি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে প্রধান শিক্ষকের অনুসারি কিছু শিক্ষার্থীরাসহ বহিরাগত লোকজন কাল ব্যাচ ধারন করে প্রধান শিক্ষকের পক্ষে গতকাল রবিবার দুপরে আরেকটি বিক্ষোভ মিছিল বের করলে চরম উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। ম্যানিজিং কমিটির সভাপতিসহ এলাকার গন্যমান্য লোকজন এসে পরিস্থিতি কিছুটা নিয়ন্ত্রনে আনলেও শিক্ষার্থীদের দু-গ্রুপের মাঝে টান টান উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোন মুহুর্তে অপ্রীতিকর ঘটনার আশঙ্কা করছেন এলাকাবাসী।
বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রী ও অভিভাবক সূত্রে জানা যায়, বর্তমান প্রধান শিক্ষক মোঃ রফিক উল্যাহ অত্র বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পাওয়ার শুরু থেকে ভর্তির সময় শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে রিসিটের মাধ্যমে টাকা নিলেও তা বিদ্যালয়ের রেজিঃ খাতায় লিপিবদ্ধ না করে পূনরায় শিক্ষার্থীদের চাপ প্রয়োগ, বার্ষিক পরীক্ষায় হিন্দু ধর্ম পরীক্ষা না নিয়ে ফলাফল ঘোষণা, কোচিং না করিয়ে জেএসসি পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে কোচিংয়ের টাকা আদায়, বিগত বছরগুলোতে স্বাধীনতা দিবসের সময় বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়ার পূরুস্কার প্রদান না করে উক্ত টাকা আত্মসাত, বিভিন্ন সময়ে ভূয়া বাউচার তৈরি করে টাকা আত্মসাতসহ ফরম পূরন ও ভর্তির সময় অতিরিক্ত টাকা আদায়ের বেশ কিছু অভিযোগ উঠেছে। এসব ঘটনায় শিক্ষার্থীরাসহ অভিভাবকগণ বিভিন্ন সময় প্রধান শিক্ষককের কাছে কারন জানতে চাইলে প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম তাদেরকে বিভিন্নভাবে নাজেহাল করে আসছে।
বিগত বার্ষিক পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণার পর থেকে নতুন করে ভর্তি করতে মোটা অংকের টাকা দাবী করায় শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকদের মাঝে চরম ক্ষোভ দেখা দেয়। এ ক্ষোভকে প্রতিহত করতে প্রধান শিক্ষকের অনুসারীরা অভিভাবকদের চাপ প্রয়োগ করলে অভিভাবকরা ক্ষোভে ফেটে পড়েন। এ ঘটনার জের ধরে রবিবার দুপুরে প্রধান শিক্ষকের অপসারন দাবীতে কোমলমতি শিক্ষার্থীও অভিভাবকরা বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে মাথায় লাল ফিতা বেঁধে বিক্ষোভ করে। এসময় প্রধান শিক্ষকের অনুসারীরা প্রধান শিক্ষককে রক্ষায় মাথায় কালো ফিতা বেঁধে বহিরাগত লোকদের দিয়ে পাল্টা বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। এ ব্যাপারে প্রধান শিক্ষক মোঃ রফিক উল্যাহ অভিযোগের কোন জবাব না দিয়ে জানান, স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি জাফর উল্যা ভূইয়ার নির্দেশে আমি কাজ করছি। সভাপতির অবহেলায় কোন সমাধান করা যাচ্ছে না। এখানে ব্যাক্তিগতভাবে আমার কোন করনীয় নেই। ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি জাফর উল্যাহ ভূইয়ার মোবাইলে বার বার চেষ্টা করেও বক্তব্য নেয়া যায়নি। মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা কামাল হোসেন জানান, স্কুল কমিটির সভাপতি নিচহরা এলাকার জাফর ভূইয়া তিনি সব কিছু জানেন হয়তো। অভিযোগগুলোর ব্যপারে আমাকে কেউ জানায়নি।