জেএসসি পরীক্ষাও হচ্ছে না এবার

প্রাথমিক সমাপনীর মতো এ বছর হবে না জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষাও। ফলে অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা বার্ষিক পরীক্ষা ও অ্যাসাইনমেন্ট মূল্যায়নের ভিত্তিতে নবম শ্রেণিতে উত্তীর্ণ হবে।

মঙ্গলবার এমন নির্দেশনা দিয়েছে আন্তঃশিক্ষা শিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটি। এতে স্বাক্ষর করেন ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক নেহাল আহমেদ।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, করোনা ভাইরাস সংক্রমণের সার্বিক পরিস্থিতি এবং শ্রেণিকক্ষে শিক্ষা-শেখানো কার্যক্রম বিবেচনায় ২০২১ সালের জেএসসি পরীক্ষা গ্রহণ না করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এ অবস্থায় স্ব স্ব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে বার্ষিক পরীক্ষা ও অ্যাসাইনমেন্টের ভিত্তিতে শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন করে নবম শ্রেণিতে উত্তীর্ণ করতে হবে।

২০২১ সালের জেএসসি পরীক্ষার্থীদের স্ব স্ব প্রতিষ্ঠানে বার্ষিক পরীক্ষা ও অ্যাসাইনমেন্ট মূল্যায়ন করে প্রস্তুতকৃত ফলাফলের ভিত্তিতে বোর্ড থেকে উত্তীর্ণ সনদ দেয়া হবে। এ জন্য আগামী ৬ থেকে ১৩ ডিসেম্বরের মধ্যে জেএসসি পরীক্ষার্থীদের ফরম পূরণ করতে নির্দেশনা দিয়েছে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড।

এর আগে করোনা সংক্রমণ ও শিক্ষার্থীদের ক্লাস না হওয়ার কারণে চলতি বছর (২০২১) প্রাথমিক স্তরের পঞ্চম শ্রেণির সমাপনী পরীক্ষা এবং অন্যান্য শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষা গ্রহণ না করার সিদ্ধান্ত নেয় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

এ বিষয়ে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক প্রফেসর এম. এম. আমিরুল ইসলাম বাংলাদেশ বলেন, শিক্ষামন্ত্রী আগেই বলেছিলেন যে, জেএসসি পরীক্ষা হবে না। ১৪ নভেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে এসএসসি পরীক্ষা। চলবে ২৩ তারিখ পর্যন্ত। আবার ডিসেম্বরের শুরুতে হবে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা। জেএসসি পরীক্ষা নেয়ার মত সময়ও কিন্তু আমাদের হাতে নেই।

সর্বশেষ মন্ত্রণালয় থেকে একটি নির্দেশনা এসেছে স্ব স্ব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এসব শিক্ষার্থীদের স্কুলে পরীক্ষা ও যেসব অ্যাসেসমেন্ট দেয়া ছিল তার ভিত্তিতেই ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন করা হবে।

জেএসসি পরীক্ষার্থীদের সার্টিফিকেট প্রসঙ্গে তিনি আরো বলেন, এবার কোনো গ্রেডিংয়ের ব্যাপার থাকছে না। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে শিক্ষার্থীদের ফল আমাদের কাছে পাঠানো হবে। এর ভিত্তিতেই আমরা পাসের সনদ বিতরণ করবো।