চট্টগ্রামে সব ট্রেনের যাত্রা বাতিল, হাজার হাজার যাত্রীর র্দূভোগ

imagesচট্টগ্রাম অফিস: মিরসরাইয়ের বড়তাকিয়া এলাকায় ট্রেন দুর্ঘটনায় চট্টগ্রামের সঙ্গে সারা দেশের ট্রেন যোগাযোগ বন্ধ থাকায় ছয়টিসহ সব ট্রেনের যাত্রা বাতিল করেছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।সোমবার সকাল ১১টা পর্যন্ত ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক না হওয়ায় চট্টগ্রাম থেকে চারটি ও ঢাকা থেকে দুটি ট্রেনের সূচি বাতিল করা হয়েছে। এদিকে ট্রেন দুর্ঘটনায় চার সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।সোমবার ভোরে মিরসরাই উপজেলার বড়তাকিয়া এলাকায় রেল লাইনের প্যান্ডেল ক্লিপ খুলে ফেলায় চট্টগ্রামগামী ময়মনসিংহ এক্সটেপ্রস ট্রেনের দুটি বগি ও একটি ইঞ্জিন লাইনচ্যুত হয়। এতে চট্টগ্রামের সঙ্গে সারাদেশের ট্রেন যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়। আহত হয় ১০ জন যাত্রী।চট্টগ্রাম রেলওয়ে স্টেশন ম্যানেজার আবুল কালাম আজাদ বলেন, সকাল ৬টা ৪০ মিনিটে সূবর্ণ এক্সপ্রেস ও ৭টায় মহানগর প্রভাতী চট্টগ্রাম ছেড়ে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু দুর্ঘটনার কারণে যেতে পারনি।ফলে সূবর্ণ, মহানগর প্রভাতী, চাঁদপুরগামী সাগরিকা ও বিকেলের গোধূলী এক্সপ্রেস ট্রেনের যাত্রা বাতিল করা হয়েছে। এছাড়া ঢাকা থেকে চট্টগ্রামগামী সূবর্ণ ও মহানগর প্রভাতীর যাত্রা বাতিল করা হয় বলে জানান তিনি। এদিকে রেল দুর্ঘটনা তদন্তে চার সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এতে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা ফিরোজ ইফতেখারকে প্রধান করা হয়েছে।কমিটির তিন সদস্য হলো- রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের বিভাগীয় মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার (লোকো) তৌহিদুর রহমান, বিভাগীয় প্রকৌশলী-১ আবিদুর রহমান, ডিএসটি সাকির হোসেন।কমিটিকে দ্রুত সময়ের মধ্যে পূর্বাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক বরাবর প্রতিবেদন জমা দেওয়া নির্দেশ