মর্নিংসান২৪ডটকম Date:০৪-০৮-২০১৪ Time:৭:৪৬ অপরাহ্ণ


চট্টগ্রাম অফিস :
নাসরিন সুলতানা। একজন রাজনীতিক ও মানবাধিকার নেত্রী। জাতির জনকের আর্দশকে ধারণ করে তাঁর রাজনৈতিক দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাথে ওতোপোত ভাবে জাড়িত। বর্তমানে বাংলাদেশ আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগ উত্তর জেলার সভানেত্রী। একই সাথে উত্তর জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদীকা। রাজনীতির পাশাপাশি মানবাধিকার সংগঠনের সাথেও তিনি জড়িত। কাজ করছেন সমাজের বিভিন্ন সেক্টরে।
বর্তমানে তিনি বাংলাদেশ মানবাধিকার ফোরামের সহ সভাপতি। এপেক্স বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের আজীবন সদস্য।
চট্টগ্রামের মিরসরাই উপজেলায় মিঠাছড়া মটবাড়িয়া গ্রামে। মুক্তিযুদ্ধ পরবর্তী প্রজন্মের এই সাহসী রাজনীতিক জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে স্বচক্ষে না দেখলে আজীবন লালন করে চলেছেন জাতির জনকের স্বপ্ন। নানান প্রতিকূলতাকে ডিঙ্গিয়ে বর্তমানে তিনি বর্তমানে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভানেত্রী, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশন-২০২১ কে বাস্তবায়নে কাজ করছেন। নাসরিন সুলতানা বিশ্বাস করেন-জাতিক জনক চেয়েছেন একটি ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত সোনার বাংলাদেশ গড়ে তুলতে। কিন্তু জাতিরজনকের সেই স্বপ্ন এই দেশের স্বাধীনতা বিরোধীদের কারণে বাস্তবায়ন না হলেও তাঁরই সুযোগ্য কন্যা বাঙালি জাতির আশা-আঙক্ষার প্রতীক বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ শেখ হাসিনা সেই স্বপ্ন বাস্তবায়ন করছেন। বর্তমানে সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নের পথে। ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ একটি উন্নত মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হবে।
সম্প্রতি নাসরিন সুলতানা অনলাইন পত্রিকা মর্নিংসান২৪ডট কমকে জানান, নিজের বিবেকের তাড়নায় রাজনীতি করতে এসে দেখেছি আমাদের অনেকে মধ্যে আর্দশের ঘাটতি আছে। এটাকে দূর করতে হবে। আমি জাতিরজনকের আর্দশকে হৃদয়ে ধারন করে বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর হাতকে শক্তিশালী কারতে চাই। আমার চাওয়া-পাওয়ার কিছু নেই।
আমি মৎস্যজীবী লীগের মতো একটি ছোট সংগঠনের ব্যানারে কাজ করে আমি দেখাতে চাই-যেকোনো জায়গা থেকেই সমাজ ও দেশের জন্য কাজ করা সম্ভব।
আমি বর্তমান প্রধানমন্ত্রীকে আমার আর্দশ হিসেবে নিজে এই দেশের নারী সমাজের জন্য কাজ করতে চাই। নিরিহ-বাগশক্তিহীন নারীদের জন্য আমি কাজ করতে চাই। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী এই দেশের নারী সমাজকে ঘর থেকে বের করে এনে কর্ম সংস্থানের ব্যবস্থা করেছেন। এই দেশের নারী সমাজ আজীবন আমাদের নেত্রীকে মনে রাখবেন। উনি নারী সমাজকে আলোকিত করেছেন-শিক্ষার জাগরণ ঘনিয়েছেন।
বর্তমান তরুন প্রজন্মকে এগিয়ে আসতে হবে। এই তরুণ প্রজন্মের জন্য প্রধানমন্ত্রী তথ্য উপদেষ্টা তথ্য প্রযুক্তিবিদ সজিব ওয়াজেদ জয় এই দেশের তরুণ প্রজন্মের জন্য কাজ করছেন। তিনি এই দেশকে একটি তথ্য প্রযুক্তি নির্ভর বাংলাদেশ উপর দিতে দিনরাত কাজ করছেন। এই দেশের তরুন প্রজন্ম ইতোমধ্যে এর সুফল ভোগ করছেন। আমি মনে করি সজিব ওয়াজেদ জয় আমাদের বাংলাদেশর অহংকার।