৬ বছরেই ধর্ষিতা হন এমপির স্ত্রী

jakia..labor 2_54274_1আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: মাত্র ছয় বছর বয়সে যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছিলেন ব্রিটেনের লেবার পার্টির সাংসদ সিমন চেরিসটোপার ড্যানচুকের স্ত্রী ক্যারেন। সেলভি লাভার ক্যারেন নিজেই ডেইলি সানকে এসব কথা বলেন।ক্যারেন জানান যে মাত্র ছয় বছর বয়সে এক পারিবারিক বন্ধুর মাধ্যমে তিনি ধর্ষিত হয়েছেন। ৩১ বছর বয়সী ওই নারী আরও বলেছেন, একবার-দুবার নয় একাধিকবার তিনি যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। ওই ব্যক্তি আমার কাছে এটিকে খেলা বলে দাবি করে। তবে আমি ছোট হলেও তখনই বুঝতে পেরেছিলাম যে কাজটি ঠিক নয়, বরং ভুল।দুই সন্তানের জননী ক্যারেন শুধুমাত্র সাংসদের স্ত্রী হিসেবে নয়, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বেশ পরিচিত মুখ। বিশেষ করে সেলভি তুলে নিজের বিভিন্ন মুহূর্ত টুইটারে শেয়ার করার জন্যেই তিনি পরিচিত।ক্যারেন জানান,যৌন নির্যাতনের শিকার হলে অনুভূতিটা আত্মহনণের মতো।ঘটনার বিবরণ দিয়ে ক্যারেন বলেন, আমার বয়স তখন মাত্র ছয় বছর। আমাদের পারিবারিক ওই বন্ধু একদিন রাতে আমার শোবার ঘরে চলে আসে। কোনো কথা না বলে আমাকে জড়িয়ে ধরে। সে আমাকে বলে এটি একটি খেলা। কিন্তু আমি ছোট হলেও বুঝতে পেরেছিলাম কোনটি সঠিক এবং কোনটি ভুল। আমি জানি, এটি ভুল হচ্ছিল। এরপর এভাবে একবার নয়, বারবার আমাকে ধর্ষণ করেছে৬ বছরেই ধর্ষিতা হন ব্রিটিশ এমপির স্ত্রীক্যারেন আরও বলেন, এরপর অনেক সময় ওই ব্যক্তি আমার ঘরে আসলে, আমি ভয়ে নিজেকে কম্বলের মধ্যে গুটিয়ে ফেলতাম। যেনো সে আমাকে খুঁজে না পায়। কিন্তু তখন পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ হতো। ওই ব্যক্তি এতো নিষ্ঠুর ছিল যে তখন নির্যাতনের মাত্রা আরও বাড়িয়ে দিতো।আমার শৈশব অনেক বেদনাদায়ক ছিল। আমি চাই না আর কারো এমনটি হোক -বললেন ক্যারেন।এসব ঘটনা শৈশব থেকে তাড়া করতো ক্যারেনকে। এমনকি আত্মঘাতী হওয়ার চেষ্টাও করেছিলেন। তবে তার স্বামী লেবার পার্টি রাজনীতিবিদ এবং ব্রিটিশ পার্লামেন্টের সদস্য সিমন তাকে বেঁচে থাকার এবং সুস্থ জীবনের প্রেরণা দিয়েছেন। এরপরে তার আত্মবিশ্বাস ফিরে এসেছে এবং তিনি স্বাভাবিক জীবনে ফিরে এসেছেন বলে জানালেন ক্যারেন।উল্লেখ্য, ২০১০ সাল থেকে লেবার পার্টির এই রাজনীতিবিদ ইংল্যান্ডের পার্লামেন্ট সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।