মর্নিংসান২৪ডটকম Date:28-02-2015 Time:3:29 pm


imagesনিজস্ব প্রতিবেদক: ভারতে নির্বাসিত বাংলাদেশি লেখক তসলিমা নাসরিন বলেছেন, অভিজিতের খুনীরা পুলিশের চোখের সামনে পালিয়েছে। পুলিশ কি ইচ্ছে করেই ওদের ধরেনি? তবে আমার কাছে মনে হয়- পুলিশ হয়তো ইচ্ছে করেই ওদের ধরেনি। কিছু পুলিশ নাকি দেখেছে যখন অভিজিতকে কোপাচ্ছে দুটো ইসলামী সন্ত্রাসী, ভেবেছে ছেলেরা ছেলেরা মারামারি করছে।শনিবার ফেসবুকে এক স্ট্যাটাসে এসব কথা বলেন নারীবাদী লেখক তসলিমা নাসরিন। তিনি বলেন, পুলিশ গত বছর থেকে জানতো আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের হিটলিস্টে অভিজিৎ রায়ের নাম চার নম্বরে। ওই টিমের প্রধান জসীমুদ্দিন রাহমানী প্রচুর ছেলের মগজধোলাই করেছে। মুহম্মদের সমালোচনা যে লেখকই বা ব্লগারই করবে তাকে খুন করার উৎসাহ দিত রাহমানী। মেরে ফেলার জন্য আটজনের একটা লিস্ট করেছিল। রাহমানী এখন জেলে। কিন্তু মগজধোলাই হওয়া তার বন্ধ শিস্যগুলো তো জেলের বাইরে! রাহমানীর শিস্যদেরই যে শুধু খুনী হওয়ার আশঙ্কা, বলছি না। বুঝে কোরান পড়লেও মগজধোলাই হয়।তসলিমা নাসরিন বলেন, অসংখ্য মানুষ এবং পুলিশের চোখের সামনে খুন হলো অভিজিৎ। আততায়ীরাও হয়তো ভাবেনি এত সহজে কাজটা সম্ভব হবে। জঙ্গিদের হিটলিস্টে আর যাদের নাম আছে, তাদের কি এখন থেকে প্রটেকশন জুটবে? নাকি তাদেরও এক এক করে এভাবে মরতে হবে যেভাবে অভিজিৎ মরেছে?