ফটিকছড়িতে গণপিটুনিতে ডাকাত নিহত

unnamed2আবু মনসুর ছটিকছড়ি প্রতিনিধি: ফটিকছড়িতে গণপিটুনিতে এক ডাকাত নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার গভীর রাতে উপজেলার সমিতিরহাট ইউনিয়নের উত্তর নিশ্চিন্তপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ বুধবার সকালে লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করেছে।
ফটিকছড়ি থানার উপ-পরিদর্শক(এস.আই) শফিকুল ইসলাম বাবু বলেন, মঙ্গলবার রাত দুটার দিকে ওই এলাকার প্রবাসী রফিকের ঘরে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হয়। মসজিদের মাইকে এলাকায় ডাকাতের হানা দেওয়ার ঘোষণা দেওয়ার পর এলাকাবাসী চারদিকে থেকে ঘিরে ফেলে। ডাকাতদলে ৭/৮ জন থাকলেও তাদের মধ্যে একজনকে আটক করে গণধোলাই দেন এলাকাবাসী। অন্যরা পালিয়ে যায়। গণপিটুনির এক পর্যায়ে ওই ডাকাত নিহত হয়।আমির হামজা নামক স্থানীয় এক যুবক বলেন, বিগত দুমাস যাবৎ ওই এলাকায় ডাকাতরা হানা দিচ্ছে। তারা ইতিমধ্যে এলাকার আবদুল মোনাফ, হারুন কালু, আহমদ উল্লাহ ও শফির বসতঘরে প্রবেশ করে মূল্যবান মালামাল ও নগদ অর্থ লুট করে নিয়ে যায়। ডাকাতের ভয়ে মানুষ শান্তিতে ঘুমাতে না পেরে ডাকাতি রোধ করতে আমরা এলাকবাসী পালা করে এলাকায় পাহারা দিয়ে আসছিলাম। গত কিছুদিন পূর্বে আরো এক ডাকাতকে ধরে পুলিশের হাতে সোপার্দ করেছিলাম।সরেজমিনে দেখা যায়, বিলের মাঝে পড়ে আছে নিহতের লাশ। তার পরনে প্যান্ট ও শার্ট রয়েছে। লাশের চারদিকে মানুষের ভিড়। কেউ কেউ নিহতের মুখে থু-থু দিতে দেখা গেছে।ফটিকছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মফিজ উদ্দিন বলেন, লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। নিহতের পরিচয় এখনো মেলেনি। তবে, সে মৃত্যুর পূর্বে তার বাড়ি খাগড়াছড়িতে বলে এলাকাবাসীকে জানিয়েছিল।