মর্নিংসান২৪ডটকম Date:০৫-০৩-২০১৫ Time:২:২৭ অপরাহ্ণ


1908409_332657033562439_6423429162223335524_nমোঃ কামাল হোসেন: দেশকে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা তথা ক্ষুধাদারিদ্র বিহীন উন্নত দেশ গড়তে হলে দেশের সমগ্র জাতিকে ঐক্যবদ্ধভাবে চেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে। বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার ঘোষিত ডিজিটাল বাংলাদেশ সম্পূর্ণরূপে বাস্তবায়িত হলে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা ৮০% বাস্তবায়ীত হবে বলে আমি মনে করি। ইতিমধ্যে দেশ অনেকটা এগিয়ে গেছে। শত বাধা বিপত্তিকে অতিক্রম করে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বাস্তবায়ন করার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। স্বাধীনতার স্বপ্নস্বাদ বাংলার প্রতিটা ঘরে ঘরে পৌঁছে দেওয়ার জন্য বর্তমান সরকার আন্তরিক। কিন্তু বর্তমানে রাজনীতির নামে অপরাজনীতি হরতালের নামে গাড়ি ভাংচুর, অগ্নিসংযোগ, মানুষ হত্যা, অবরোধের নামে দেশের উন্নয়নের চাকা বন্ধ করে দেওয়া কথিত রাজনীতিবীদের জন্য একটা সংস্কৃতি হয়ে দাড়িয়েছে। যখন তখন কথিত হরতাল অবরোধে সাধারণ জনগণ আতংকে দিন কাটাচ্ছে। যে হরতাল-অবরোধ জনগণের কোন কল্যাণ করে না সেই হরতাল অবরোধ জনগণ আর চায় না। রাস্তায় বের হলে তার প্রমান পাওয়া যায়। শত বাধা বিপত্তিকে অতিক্রম করে সরকার জনগণের জন্য কাজ করে যাচ্ছে। বর্তমান সরকার দেশের দক্ষ মেহনতী মানুষকে বিনা খরচে বহিঃবিশ্বের শ্রম বাজারে পাঠাচ্ছে যাতে তারা শ্রম বিক্রি করে স্বাবলম্বী হয়। অতীতের কোন সরকার এ রকম কোন রেকর্ড সৃষ্টি করেনি। দেশের আর্থ সামাজিক উন্নয়ন, বিদ্যুৎ, যোগাযোগ, খাদ্য ও শিক্ষা ক্ষেত্রে দারুন বিপ্লব ঘটিয়েছে সরকার। গত ৪/৫ বছরে দেশ এতটা এগিয়ে যাবে কেউ কোনদিন কল্পনাও করেনি। দেশের জনসাধারণের মৌলিক চাহিদা সুনিশ্চিত বাস্তবায়নের লক্ষে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। বেকারদের কর্মসংস্থান অনেক বৃদ্ধি করেছে। তারপরও অনেক বেকার লোক রাস্তা-ঘাটে যত্রতত্র ঘোরাফেরা করতে দেখা যায়। তারা কাজ খুজে পায় না। অনেক শিক্ষিত, অশিক্ষিত বেকার লোক বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের ছত্রছায়ায় থেকে দলের পরিচয় বহন করে বেড়ায়। তারা প্রতিদিন কোন না কোন মিটিং মিছিল কিংবা জনসংযোগে অংশগ্রহণ করে থাকে। হরতাল, নৈরাজ্য, অগ্নিসংযোগ ও বোমাবাজির মত জঘন্য অপরাধের সাথেও তারা সম্পৃক্ত হয়। এরপর অনেকের ভাগ্যে জোটে মামলা, হামলা, জেল, জরিমানা। জেল থেকে বের হয়ে তারা আরো বেপরোয়া হয়ে অন্যায় কর্মকাণ্ডে জড়িত হয়ে পড়ে। সেই পথ থেকে আর কখনো তারা ফিরে আসতে পারে না। কোন না কোন কারণে কিছুকিছু লোককে দেখা যায়, রাস্তার ফুটপাতকে স্থায়ী ঠিকানা করে নিতে। কর্মের অভাবে বা কাজ না করার অনীহার কারণে অনেক লোক গরীব অসহায়ত্ব জীবন-যাপন করে। তারা অনেকেই অসামাজিক কার্যকলাপেও জড়িত এবং তাকে পেশা হিসেবে গ্রহণ করে নিয়েছে। তাদের কাছে জন্ম নিচ্ছে এইডস এর মত ভয়াবহ জীবানু। এভাবে একটি জাতির একটি অংশ নিজেদের ধ্বংস করতে পারে না এবং অপরকেও ধ্বংস করতে পারে না। বর্তমান সরকার জনবান্ধব সরকার, শত বাধা বিপত্তিতেও এ সরকার গরীব জনগোষ্ঠীর জন্য কাজ করে যাচ্ছে। মাননীয় সরকারকে আমি একজন নাগরিক হিসেবে বলব দারিদ্রতা ও অপরাধ প্রবণতা কমাতে বাধ্যতামূলক শ্রমের কোন বিকল্প নেই। আমার কথা হচ্ছে, ধনী-গরীব, রাজনীতিবিদ আমরা যা হই না কেন আমাকে যোগ্যতা অনুসারে কোন না কোন কর্ম করতে হবে এবং কর্ম না করাকে অন্যায় হিসাবে জানতে হবে। যদি কর্ম বা শ্রমকে বাধ্যতামূলক করা হতো তাহলে বেকার লোক কমে যেত, অন্যায় ও অসামাজিক কার্যকলাপ কমে যেত এবং সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় দেশ হতো সোনার বাংলা। বর্তমানে আমরা যারা রাজনীতি করি বা যারা রাজনৈতিক কর্মী সমর্থক তাদেরকেও একই লক্ষে কর্মকে পেশা হিসেবে গ্রহণ করতে হবে। রাস্তার ফুটপাতে যারা থাকে তাদের প্রত্যেককে প্রশাসনিক সহায়তায় চিকিৎসা ও শিক্ষা প্রদানের মাধ্যমে বাধ্যতামূলক শ্রমের আওতায় আনতে হবে। ২০ বছর বয়স থেকে ৪৫ বছর বয়সের সকল নাগরিককে বাধ্যতামূলক শ্রমের আওতায় আনতে হবে। এ লক্ষে সরকারী, বেসরকারী ও ব্যক্তিগতভাবে কর্মসংস্থান সৃষ্টি করে তাতে জনবল নিয়োগ দিতে হবে। নির্দিষ্ট একটা সময়ে মানুষ যখন কর্মে লিপ্ত থাকবে তখন মানুষ অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হওয়ার চেষ্টা করবে। অসহায়ত্ব আর থাকবে না। অপরাধ কর্মকাণ্ডে জড়িত হওয়ার সুযোগ, সময় বা স্পৃহা আর থাকবে না। তাতে দেশ থেকে দারিদ্রতা ও অপরাধ প্রবণতা অনেকাংশে কমে যাবে। মূলত সমগ্র জাতিকে বাধ্যতামূলক শ্রমের আওতায় আনতে পারলে এবং সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এটি বাস্তবায়িত হলে এ দেশ পৃথিবীতে একটি মডেল হয়ে দাঁড়াবে।

লেখক: সাংবাদিক মোঃ কামাল হোসেন

 

পাস্তুরিত দুধ নিয়ে কারসাজি আছে কি না দেখা উচিত: প্রধানমন্ত্রী» « চান্দগাঁওয়ে ডোমখালী খালে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ শুরু» « পাকিস্তানে সামরিক বিমান বিধ্বস্তে নিহত ১৭, আহত ১২» « র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে ধর্ষণকারীর নিহত» « গুজব রটনাকারীদের ধরিয়ে দিতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর» « লামায় বন্যা ও পাহাড় ধসে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে চাল বিতরণ» « কক্সবাজার শহর রক্ষায় ঝাউবন করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর» « দেশের সব উপজেলায় মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর» « সিঙ্গাপুরে ওবায়দুল কাদেরের স্বাস্থ্যের আশানুরূপ উন্নতি» « প্রাইভেটকারে করে এসে ছিনতাইয়ের চেষ্টা, ৩ জনকে গণপিটুনি» «