চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন উপলক্ষে সিএমপির মত বিনিময় সভা

mail.google.comচট্টগ্রাম অফিস: চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচন উপলক্ষে নগরীর চান্দগাঁও থানাধীন রিদম কমিউনিটি সেন্টারে সিএমপি পুলিশে এক মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। চান্দগাঁও থানা আয়োজিত উপ-পুলিশ কমিশনার (উত্তর) পরিতোষ ঘোষ এর সভাপতিত্বে চান্দগাঁও থানার জনগণের সাথে আসন্ন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন উপলক্ষে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোহাঃ আবদুল জলিল মন্ডল, সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অতিঃ পুলিশ কমিশনার (প্রশাসন, অর্থ ও ট্রাফিক) একেএম শহিদুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম এন্ড অপারেশন) বনজ কুমার মজুমদার, পিপিএম। প্রধান অতিথির সূচনা বক্তব্যে পুলিশ কমিশনার বলেন, আগামী ২৮ এপ্রিল সিটি নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ করে তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে। আমরা এখন নির্বাচন কমিশনের অধীনে। নির্বাচন কমিশন হতে যে নির্দেশনা আসবে আমরা সে নির্দেশনা যথাযথভাবে পালন করব। প্রত্যেকটি কেন্দ্রে ভোটাররা যাতে নির্ভয়ে নিরাপদে ভোট দিতে পারে আমরা সে ব্যবস্থা রাখব। আপনারা সৎ প্রার্থী নির্বাচন করুন। সৎ প্রার্থী নির্বাচিত হলে চট্টগ্রাম শহরের চেহারা সুন্দর ও পরিচ্ছন্ন হবে। আমি আপনাদের সাথে আছি, আপনাদের সাথে থাকব। আপনাদেরকে সাথে নিয়েই কাজ করতে চাই। এ সব কার্যক্রমের পাশাপাশি আমাদের পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা অভিযানও অব্যাহত থাকবে। চট্টগ্রাম শহরকে পরিচ্ছন্ন নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে অনেকটা এগিয়ে ছিলাম কিন্তু গত ০৫ জানুয়ারীর পর থেকে সে প্রচেষ্টায় কিছুটা ভাটা পড়েছে। আমরা রাজনীতি বুঝিনা, আমরা মানুষকে শান্তিতে রাখতে চাই। আমরা নিরাপত্তা দেওয়ার জন্য বদ্ধপরিকর। সব ব্যাপারে আপনারা আমাদেরকে সহযোগিতা করে আসছেন, ভবিষ্যতেও ভাল কাজে আপনারা আমাকে তথা চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশকে সহায়তা করবেন বলে আমি বিশ্বাস করি। তিনি রাস্তা-ঘাট পরিস্কারের পাশাপাশি খারাপ লোকদের ভাল হয়ে যাওয়ার আহ্বান জানান। পুলিশ কমিশনার মহোদয় বক্তব্য শেষে উপস্থিত জনসাধারণের নিকট হতে মতামত আহ্বান করেন। সভায় উপস্থিত সম্ভাব্য কাউন্সিলর প্রার্থী তাদের মতামত তুলে ধরেন। তাদের মতামতে আসন্ন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে কালো টাকার প্রভাব রোধ করার বিশেষ করে নির্বাচনের আগের দিন টাকা ছড়িয়ে ভোট কেনা প্রতিহত করতে পুলিশের সহযোগিতা কামনা করেন। পুুলিশ কমিশনার মহোদয় ধৈর্য্য সহকারে মতামত শুনেন ও আইনগত সব ধরণের সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করে বলেন, যারা কালো টাকায় ভোট ক্রয়, কেন্দ্র দখল, ব্যালট পেপার ছিনতাই এবং বল প্রয়োগ করে নির্বাচিত হওয়ার চিন্তা করেন, তারা নিজেরাই শপথ নেন যেন কালো টাকা দিয়ে ভোট ক্রয় করতে না হয়। আপনি ভাল মানুষ হলে জনগণ আপনাকে ভোট দিবে। সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে কারো অসৎ চিন্তা