রাঙামাটিতে বৌদ্ধ ভিক্ষুকে কুপিয়ে খুন

imagesরাঙামাটি অফিস: জেলার বাঘাইছড়িতে এক বৌদ্ধ ভিক্ষুকে কুপিয়ে খুন করেছে উপজাতীয় চাকমা যুবক। নিহত ভিক্ষুর নাম জ্ঞানজ্যোতি চাকমা (৬০)। তার বাড়ি উপজেলার গলাছড়ি এলাকায়। রোববার দিবাগত মধ্যরাতে বাঘাইছড়ির করঙ্গাতলীতে অবস্থিত বৌদ্ধ বিহারে ওই হত্যাকাণ্ড ঘটে। বিহারে শ্রবণ নিতে যাওয়া উপজাতীয় চাকমা যুবক রাজীব চাকমা ওরফে জাম্বু এই ঘটনার পর থেকে পলাতক। তিনি বঙ্গলতলী ইউনিয়নের বি-ব্লকের বাসিন্দা ব্রড কুমার চাকমার ছেলে। স্থানীয় বাসিন্দা, বিহার পরিচালনা কমিটি ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, প্রায় তের বছর ধরে বঙ্গলতলী বি-ব্লক শ্রাবন্তী বৌদ্ধবিহারে ধর্মীয় কার্য পরিচালনা করতেন জ্ঞানজ্যোতি মহাথেরো। কয়েক দিন আগে একই এলাকার বাসিন্দা রাজীব চাকমা বৌদ্ধ ধর্মের শ্রবণ নিতে যান বিহারে। রোববার দিবাগত মধ্যরাতে তিনি দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেন জ্ঞানজ্যোতি মহাথেরোকে। ভোরে এলাকাবাসী ভিক্ষুর মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেয়। তবে পুলিশকে লাশ নিতে দেয়নি বিহার পরিচালনা কমিটি। তারা জানায়, ধর্মীর রীতি অনুযায়ী ভিক্ষুর শরীরে কেউ হাত দিতে পারে না। বিহার পরিচালনা কমিটির সদস্য রিকেন চাকমা বরেন, “আমাদের রীতি অনুসারে নিহতের লাশ ময়নাতদন্ত করতে দেয়া হয় না। তাই আমরাও দেব না।” এ ঘটনায় বিহারের পক্ষ থেকে কোনো মামলা করবে না বলেও জানান তিনি। বাঘাইছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম আজিজুল হক চৌধুরী এসব বিষয়ের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, “আমরা প্রাথমিক অবস্থা দেখে চলে যাচ্ছি।” এই ঘটনায় নিয়মিত মামলা করা হবে বলে জানান তিনি।