অস্বাস্থ্যকর ৫টি খাবারই স্বাস্থ্যকর

অস্বাস্থ্যকর ৫টি খাবারই স্বাস্থ্যকর
অস্বাস্থ্যকর ৫টি খাবারই স্বাস্থ্যকর

চট্টগ্রাম অফিস;
শরীরের জন্য ক্ষতিকর খাবারগুলো না খাওয়াটাই ভাল। কিছু খাবার আছে যা আমরা সবাই অস্বাস্থ্যকর খাবার হিসেবেই জানি। এই অস্বাস্থ্যকর খাবারগুলো যদি স্বাস্থ্যকর হয়ে যায় তবে কেমন হয়।যার খারাপ দিক আছে আবার কিছু ভালো দিকও আছে। যেমন-
১। চকলেট

চকলেট নাম শুনলে জিভে পানি চলে আসে। অনেকে মোটা হওয়ার ভয়ে এই মজাদার খাবারটি খাওয়া থেকে বিরত থাকেন। কিন্তু এই চকলেটের আছে কিছু ভাল দিক। বিশেষ করে ডার্ক চকলেট শরীরের খারাপ কোলেস্টেরল ও রক্ত জমাট বাধা কমাতে সাহায্য করে। সুইজারল্যান্ডের একটি প্রকাশিত রিপোর্ট বলা হয়েছে প্রতিদিন ১.৪ আউন্স ডার্ক চকলেট খেলে এটি আপনার দুশ্চিন্তা, মানসিক চাপ কমিয়ে থাকে। তবে অতিরিক্ত চকোলেট খেলে মোটা হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।
২। ডিম

অনেকেই কোলেস্টরেলের ভয়ে ডিম খাওয়া থেকে বিরত থাকেন। কিন্তু ডিম ক্ষতির চেয়ে উপকারই বেশি করে থাকে তা কি আপনি জানেন? প্রতিদিনের সকালের নাস্তায় একটি ডিম খেলে অন্যান্য কার্বোহাইড্রেটযুক্ত খাবার গ্রহণের পরিমাণ কমে আসে। এছাড়া ডিমের কুসুমে আছে ভিটামিন ডি, ফসফরাস, রিবোফ্লাবিন, প্রোটিন এবং সেলেনিয়াম উপাদান যা স্বাস্থ্যের জন্য অনেক উপকারী।
৩। আলু

কেউ ওজন কমাতে চাইলে আলুকে খাদ্যতালিকা থেকে সবার আগে বাদ দিয়ে থাকেন। কিন্তু আলু ওজন বাড়ানোটা নির্ভর করে আপনার রান্নার করা উপরে। আলুর চিপস ও ফ্রেঞ্চ ফ্রাইতে বেক আলুর থেকে অনেক বেশি পরিমাণের ক্যালোরী থাকে। আলুতে প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়াম ও ফাইবার আছে। সেদ্ধ বা রান্না আলু খাওয়া অনেক বেশি স্বাস্থ্যকর।
৪। বাদাম

বাদাম নাম শুনলে অনেকে ভয়ে আঁতকে উঠে। কিন্তু এই বাদামের ফ্যাট আপনার ওজন তেমন বাড়াবে না। একটি জরিপে দেখা গিয়েছে যারা বাদাম খান না তাদের তুলনায় যারা অন্য খাবারের পরিবর্তে বাদাম খান তাদের ওজন প্রায় ১.৪ পাউন্ড বা তারও বেশী হ্রাস পেয়েছে। এছাড়া বাদামে ওমেগা থ্রি রয়েছে যা হৃদযন্ত্র সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।
৫। কফি

অনেকের দিনের শুরুটা এক কাপ কফি খেয়ে শুরু হয়। এক কাপ কফি আপনার সারাদিনের কর্মক্ষমতাকে অনেকখানি বাড়িয়ে দিয়ে থাকে। অথচ এই কফিকে অস্বাস্থ্যকর খাবার হিসেবে গন্য করা হয়। কিন্তু কফিতে আছে ফ্ল্যাভোনয়েড যা হৃদপিন্ড ভালো রাখে। ডায়াবেটিস, আলঝেইমার ও পার্কিনসন্স ডিজিস এর ঝুঁকি কমাতেও কফির ভূমিকা রয়েছে। তবে হ্যাঁ খালি পেটে কফি অ্যাসিডিটির সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে।

যে কোনো খাবার অতিরিক্ত খাওয়া ভাল নয়। যে কোনো খাবার পরিমিত পরিমাণে খাবেন।