মধ্যরাত থেকে পৌর এলাকায় যান চলাচলে বিধি নিষেধ

মধ্যরাত থেকে পৌর এলাকায় যান চলাচলে বিধি নিষেধ
মধ্যরাত থেকে পৌর এলাকায় যান চলাচলে বিধি নিষেধ

সুমন চৌধুরী,চট্টগ্রাম:
পৌরসভা নির্বাচন উপলক্ষে মঙ্গলবার রাত ১২টা থেকে বুধবার রাত ১২টা পর্যন্ত একদিনের জন্য নির্বাচনী এলাকায় বেবিট্যাক্সি, অটোরিকশা, ট্যাক্সিক্যাব, মাইক্রোবাস, জিপ, পিক-আপ, প্রাইভেটকার, বাস, ট্রাক ও টেম্পো সহ সব ধরনের মোটরযান চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। পাশাপাশি ইঞ্জিন চালিত নৌ-যানেও একই নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে ইসি। পৌরসভা নির্বাচনে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতেই এমন নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলে জানান ইসি’র সচিব সিরাজুল ইসলাম।

এছাড়া ২৭ ডিসেম্বর মধ্যরাত থেকে ৩১ ডিসেম্বর সকাল ৬টা পর্যন্ত চারদিনের জন্য নির্বাচনী এলাকায় মোটরসাইকেল চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা বলবত রয়েছে।

তবে রিটার্নিং কর্মকর্তার অনুমতি সাপেক্ষে প্রার্থী বা তার এজেন্ট, দেশি-বিদেশি পর্যবেক্ষক, সাংবাদিক, নির্বাচনের কাজে নিয়োজিত কর্মকর্তা-কর্মচারী, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য ও বৈধ পরিদর্শক ওইসব যান ব্যবহার করতে পারবেন। এছাড়া জরুরি হিসেবে অ্যাম্বুলেন্স, ফায়ার সার্ভিস, বিদ্যুৎ, গ্যাস, ডাক, টেলিযোগাযোগ ইত্যাদি কার্যক্রমের জন্যও ওইসব যানবাহন ব্যবহার করা যাবে। তবে মোটরযান চলাচলের নিষেধাজ্ঞা কেবল ২৩৪ পৌরসভার নির্বাচনী এলাকার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য, মহাসড়কের ক্ষেত্রে নয়। অন্যদিকে জাতীয় মহাসড়ক, বন্দর ও জরুরি পণ্য সরবরাহসহ অন্যান্য জরুরি প্রয়োজনে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এ নিষেধাজ্ঞা শিথিলের বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারবেন।

গত সোমবার রাতে ইসি’র সহকারী সচিব রাজীব আহসান নির্দেশনা সংক্রান্ত পৃথক দু’টি চিঠি সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় এবং নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছেন। ইতোমধ্যে কক্সবাজার ছাড়া সংশ্লিষ্ট সব জেলা প্রশাসকরা এ সংক্রান্ত নির্দেশনা জারি করেছেন। এদিকে পৌরসভা নির্বাচন উপলক্ষে চট্টগ্রামের দশটি পৌরসভা এলাকায় যানবাহনসহ সব ধরনের গাড়ি চলাচলে বিধি নিষেধ আরোপ করেছে জেলা প্রশাসন।

চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ, মীরসরাই, বারৈয়ারহাট, সীতাকুণ্ড, রাউজান, রাঙ্গুনিয়া, পটিয়া, সাতকানিয়া, চন্দনাইশ ও বাঁশখালী পৌরসভা এলাকায় ২৯ ডিসেম্বর দিনগত রাত ১২টার পর থেকে ৩০ ডিসেম্বর মধ্যরাত পর্যন্ত অটোরিকশা,ইজি বাইক, ট্যাক্সি ক্যাব, মাইক্রোবাস, জীপ, পিকআপ, কার, বাস, ট্রাক, টেম্পো ইত্যাদি যানবাহন ও গাড়ি চলাচলে এ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়। মোটর সাইকেলের ক্ষেত্রে এই নিষেধাজ্ঞা ২৭ ডিসেম্বর রাত বারোটা থেকে ৩১ ডিসেম্বর রাত বারোটা পর্যন্ত বলবৎ থাকবে। চট্টগ্রামের জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মেজবাহ উদ্দিন স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে উপরোক্ত নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

তবে সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং অফিসারের অনুমতি সাপেক্ষে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী, তাদের নির্বাচনী এজেন্ট, পরিচয়পত্রধারী দেশী বিদেশী পর্যটক, নির্বাচনী সংবাদ সংগ্রহ কাজে নিয়োজিত পরিচয়পত্রধারী দেশি বিদেশি সাংবাদিক, নির্বাচনের কাজে নিয়োজিত কর্মকর্তা কর্মচারী, আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য, নির্বাচনের বৈধ পরিদর্শক, এম্বুলেন্স, ফায়ার সার্ভিস, বিদ্যুৎ,গ্যাস,ডাক ও টেলিযোগাযোগ ইত্যাদি কার্যক্রমে ব্যবহারের জন্য প্রয়োজনীয় যানবাহন উপরোক্ত নিষেধাজ্ঞার আওতার বাইরে থাকবে বলেও প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে।