সমৃদ্ধি অর্জনের জন্য তথ্য-প্রযুক্তির জ্ঞান অপরিহার্য

সমৃদ্ধি অর্জনের জন্য তথ্য-প্রযুক্তির জ্ঞান অপরিহার্য
সমৃদ্ধি অর্জনের জন্য তথ্য-প্রযুক্তির জ্ঞান অপরিহার্য

চট্টগ্রাম অফিস:
সেবা প্রদান, আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টি ও সমৃদ্ধি অর্জনের জন্য তথ্য প্রযুক্তির জ্ঞান অপরিহার্য উল্লেখ করে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ব বিদ্যালয় চট্্রগ্রাম (ইউএসটিসি)’র উপাচার্য প্রফেসর ড. প্রভাত চন্দ্র বড়ুয়া বলেছেন, ইনফরমেশন টেকনোলজি আজ বিশ্বব্যাপি একটি শক্তিশালী নেটওয়ার্ক। বিশ্বকে হাতের মুঠোয় এনে দিয়ে যোগাযোগসহ সকল কাজে এই নেটওয়ার্ক এক বৃহৎ সহায়ক শক্তি হিসাবে কাজ করছে।

বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টায় ইউএসটিসি’র বিজ্ঞান প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত ‘সেমিনার অন প্রফেশনাল স্কিল ডেভলপমেন্ট এন্ড জব অপারসুনিটি ইন আইটি’ শীর্ষক এক সেমিনারে তিনি এসব কথা বলেন।

সেমিনারে মূল বক্তা ছিলেন আইটি প্রশিক্ষন স্কুল পিপল এন টেক এর প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী ইঞ্জিনিয়ার আবু বক্কর হানিফ। সেমিনারে সভাপতিত্বে করেন ফ্যাকাণ্টির ডীন ইঞ্জিনিয়ার রেজওয়ান করিম। বিশেষ অতিথি ছিলেন ফ্যাকাল্টির উপদেষ্টা প্রফেসর শাহাদৎ হোসেন, রেজিষ্ট্রার প্রফেসর ড. বদরুল আমীন ভুঁইয়া, ইউ এল এ বি’র প্রফেসর ড. সাজ্জাদ হোসাইন।

কাজী নুর ই আলম সিদ্দিকির সঞ্চালনায় সেমিনারে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সহকারী অধ্যাপক শেখ মোহাম্মদ হাবিবুল্লাহ, সহকারী অধ্যাপক আবু সাঈদ চেীধুরী প্রমুখ।

কাজে গুনগত মান বৃদ্ধি, টেকসই ও কাজ সহজীকরনের জন্য প্রফেশনাল ডেভলপমেন্ট অতীব জরুরী উল্লেখ করে ইউএসটিসি’র উপাচার্য বলেন বাংলাদেশে পোষ্ট গ্রাজুয়েট মেডিকেল শিক্ষার জনক ও ইউএসটিসি’র প্রতিষ্ঠাতা জাতীয় অধ্যাপক ডা: নুরুল ইসলাম আই টি শিক্ষার গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তা অনেক আগে উপলব্ধি করেছিলেন, তাই তিনি ইউএসটিসিতে মেডিকেল শিক্ষার পাশাপাশি বিজ্ঞান, প্রকৌশল প্রযুক্তি ও বিজনেস শিক্ষাকে অন্তর্ভুক্ত করেছেন।

ইউএসটিসি উপাচার্য বলেন আজকের শিক্ষার্থীরাই আগামী দিনে দেশ বিদেশে নানা সেক্টরে নেতৃত্ব দেবে । সুতরাং বাংলাদেশের এই কিংবদন্তি চিকিৎসকের শ্রমের ফসল ইউএসটিসি ও তাঁর দেশ ও জাতির কল্যানে নিবেদিত নানা অর্জন সমুহকে সমুন্নত রাখতে এবং নিজেকে কাঙ্খিত লক্ষ্যস্থলে নিয়ে যেতে আরো বেশি বেশি জ্ঞান অর্জন করার জন্য ইউএসটিসি’র উপাচার্য এখানকার সকল ছাত্রছাত্রীদের প্রতি বিশেষ অনুরোধ জানান।

ইঞ্জিনিয়ার আবু বকর হানিফ বলেন, পিপল এন টেক বাংলাদেশ ও আমেরিকায় প্রবাশী বাংলাদেশী তরুন প্রজন্মদেরকে আই টি’র উপর উচ্চতর প্রশিক্ষন প্রধানসহ এই বিষয়ে আত্ম কর্ম সংস্থানের পথ দেখাচ্ছে। তিনি তার প্রতিষ্ঠানের এই সুযোগ গ্রহনের জন্য সকলের প্রতি আহবান জানান। এই সময় ফ্যাকাল্টির সকল ছাত্র শিক্ষক উপস্থিত ছিলেন।