আজ লালদীঘিতে জব্বারের বলীখেলা ও বৈশাখী মেলার ১০৭তম আসর শুরু

 আজ লালদীঘিতে জব্বারের বলীখেলা ও বৈশাখী মেলার ১০৭তম আসর শুরু
আজ লালদীঘিতে জব্বারের বলীখেলা ও বৈশাখী মেলার ১০৭তম আসর শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক :
ঐতিহ্যবাহী জব্বারের বলীখেলা ও বৈশাখী মেলার ১০৭তম আসর আজ লালদীঘিতে শুরু হচ্ছে। এর আগে লালদীঘি ও আশপাশের এলাকায় তিন দিনব্যাপী মেলা গতকাল শনিবার থেকে শুরু হলেও বলীদের লড়াই আজ বিকেল সাড়ে ৩টায় লালদীঘি মাঠে শুরু হবে । আবদুল জব্বার স্মৃতি বলীখেলা ও বৈশাখী মেলা উদযাপন কমিটি ইতোমধ্যে খেলার প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। বলীখেলাকে সামনে রেখে লালদীঘি মাঠে প্রস্তুত করা হচ্ছে একটি রিং। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এবার বলীখেলায় দর্শকের ভিড় বাড়বে বলে মনে করছেন আয়োজকরা। এদিকে বলীখেলাকে কেন্দ্র করে লালদিঘি মাঠের আশপাশের কয়েক কিলোমিটার এলাকাজুড়ে জমে উঠেছে বৈশাখী মেলা। কী নেই জব্বারের বলীখেলা ও বৈশাখী মেলায়! ঘরদোর পরিষ্কার রাখার ফুলঝাড়ু , রসুইঘর থেকে শুরু করে ড্রইংরুম সাজানো-গোছানোর নানান চটকদার জিনিসপত্র, মেয়েদের সাজসজ্জার বাহারি রেশমি চুড়ি, রংবেরঙের টিপ, ওড়না, বাচ্চাদের খেলনাপাতি, হাতপাখা, মাটির শৌখিন পণ্য আর রসালো ফলের সমাহার। সঙ্গে আছে মজার মজার মণ্ডামিঠাই-মুড়িমোয়া!

ইতোমধ্যে বলীখেলায় অংশ নেওয়ার আগ্রহ জানিয়ে দেশের বিভিন্ন প্রায় ১৫০ জন বলী আয়োজকদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন বলে জানা গেছে। এদিকে আজকের বলীখেলায় অংশ নিতে কক্সবাজারের টেকনাফ, রামু, চকরিয়া ও চট্টগ্রামের বাঁশখালী, পটিয়া, সাতকানিয়া এবং পার্বত্য অঞ্চলসহ দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে বলীরা লালদীঘি পাড়ে ছুটে আসছেন। মাসখানেক আগে থেকে নেন প্রস্তুতি। এখন অপেক্ষা শুধু লড়াইয়ের।

আবদুল জব্বার স্মৃতি কুস্তি প্রতিযোগিতা ও বৈশাখী মেলা উদযাপন কমিটির সভাপতি ওয়ার্ড কাউন্সিলর জহরলাল হাজারী বলেন, ‘বলীখেলা নিয়ে আমরা প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছি। খেলার জন্য ইতোমধ্যে ১৫০ বলী যোগাযোগ করেছেন। এছাড়া যে কেউ চাইলেই বলীখেলায় অংশ নিতে পারবেন। নিরাপত্তার জন্য আমাদের নিজস্ব স্বেচ্ছাসেবকের পাশাপাশি পুলিশ মোতায়েন থাকবে। ঐতিহ্যবাহী এ উৎসব চট্টগ্রামবাসীর প্রাণের উৎসব। প্রতিবছরের মতো এবারও বর্ণাঢ্য আয়োজনে সুষ্ঠুভাবে বলীখেলা ও মেলা সম্পন্ন করতে সবার সহযোগিতা চাই।’