আনেয়ারারায় ইউএনও’র কাছে বরুমচড়ার চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে সদস্যদের অভিযোগ

আনোয়ারা উপজেলার ৫নং বরুমচড়াতে  ইউনিয়ন পরিষদ পরিচালনার সরকারি কার্যালায় থাকা সত্ত্বেও নিজ  বাড়িতেই পরিষদের কার্যক্রম পরিচালনা করার অভিযোগ উঠেছে বরুমচড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে।   

সোমবার (৪ মে) উপজেলা প্রশাসন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে লিখিত অভিযোগ দাখিল করেন,  বরুমড়া ইউনিয়ন পরিষদের ৩নং ওর্য়াড এর সদস্য মো. দরফ আলী ও ৮নং ওর্য়াড এর সদস্য মো. আবু জাফর চৌধুরী মিজান।

অভিযোগের স্বপক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণে স্থানীয় সংসদ সদস্য ও ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ এমপি ও আনোয়ারা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কাছে অনুলিপিও দেয়া হয়।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বরুমচড়া ইউনিয়ন পরিষদের কার্যক্রম পরিচালনার জন্য পরিষদের স্থায়ী কার্যালায় রয়েছে। কিন্তু চেয়ারম্যান নিজ বাড়িকে অস্থায়ী কার্যালয় বানিয়ে সেখানে পরিষদের যাবতীয় কার্যক্রম পরিচালনা করেন বলে জানা যায়।

এতে করে  এলাকার জনসাধারণ নানান অসুবিধা ও ভোগান্তির শিকার হন। পাশপাশি চেয়ারম্যানের বাড়ি ইউনিয়নের দক্ষিণ পুর্ব কোণে হওয়ায় এলাকার মানুষ গুলোর যেমন  ভোগান্তি হয় তেমনি, চেয়ারম্যানের বাড়ীতে পরিষদ হওয়ায় মেম্বারদের উপর চাপ সৃষ্টি করা হয়। এমন কি সভায় চেয়ারম্যানের একক সিদ্ধান্ত বলবৎ থাকায়   মেম্বারদের যৌক্তিক সিদ্ধান্তও গ্রহণ করা হয় না বলে জানা যায় ।

অভিযোগে আরও জানা যায় , এলএসপি, টিআর কাবিকা, ভূমি হস্তান্তর কর ১%, এডিপি, হাঁট-বাজার, রাজস্ব আয়, ভিজিএফ, ভিজিডি, চাষী খরিদ মোশম-১, হতদরিদ্র, খাদ্য বান্ধব কর্মসূচি, প্রতিবন্ধী ভাতা, বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা, মাতৃত্বকালীন ভাতা ও করোনা দূর্যোগ মহামারিতেও সঠিক ভাবে বরাদ্দ দেয়া হয় না, এবং এমনকি পরিষদের উন্নয়ন কর্মকান্ডও মেম্বারদের অগোচরে বলে জানা যায় ।

এমন পরিস্থিতিতে বরুমচড়া ইউনিয়ন পরিষদের আগামী কার্যক্রম সওদাগর দীঘিরপাড় এলাকায় পরিষদের স্থায়ী কার্যালায়ে পরিচালনা ও সঠিক বন্টনে ব্যবস্থা গ্রহণে ইউপি সদস্যরা উপজেলা প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেন।

লিখিত অভিযোগের বিষয়ে  মুঠোফোনে জানতে চাইলে, আনোয়ারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ জুবায়ের হোসেন জানান, একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।