পাথরঘাটায় র‌্যাবের অভিযানে ৩০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার জালিয়াপাড়া এলাকার নুরুল বশরের ছেলে খোরশেদ আলম (৩২) । ছোট ভাই সাইফুল ইসলাম (২৪) ও সহযোগী মো. ওসমানসহ চট্টগ্রাম শহরের কোতোয়ালী থানাধীন পাথরঘাটা আশরাফ আলী রোডে একটি মুদিদোকান পরিচালনা করেন।

প্রকাশ্যে মুদি দোকান পরিচালনা করলেও এতদিন গোপনে করতেন ইয়াবা ট্যাবলেটের ব্যবসা। আর এতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর চোখ ফাঁকি দেওয়া সহজ ছিল।

কিন্তু শুক্রবার সন্ধ্যায় খোরশেদ আলমের মুদিদোকানে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ৩০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) সদস্যরা।

গ্রেফতার করা হয় খোরশেদ আলম, তার ছোট ভাই সাইফুল ইসলাম ও সহযোগী মো. ওসমানকে। এদের মধ্যে ওসমান আনোয়ারা উপজেলার খদবহেরা এলাকার নুরুল ইসলামের ছেলে বলে জানিয়েছে র‌্যাব-৭।

র‌্যাব-৭ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. মাহামুদুল হাসান মামুন বলেন, পাথরঘাটা আশরাফ আলী রোডে একটি দোকানে অভিযান চালিয়ে ৩০ হাজার পিস ইয়াবাসহ তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

র‌্যাব-৭ এর অপারেশন অফিসার মেজর মো. মুশফিকুর রহমান  বলেন, খোরশেদ আলম পাথরঘাটা আশরাফ আলী রোডে একটি মুদি দোকান পরিচালনা করেন। মূলত মুদি দোকানের আড়ালে তিনি ইয়াবা ব্যবসা করে আসছিলেন।