এবার হজে অংশ নিচ্ছে না ৪ দেশ

বৈশিক করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে এবার হজ পালন নিয়ে সংকট সৃষ্টি হয়েছে। সৌদি আরব সীমিত পরিসরের কথা ভাবছে, কিন্তু কাগজে-কলমে তারা কোন সিদ্ধান্তে আসতে পারেনি। কেননা দেশটিতে করোনা সংক্রমণ এখনও নিয়ন্ত্রণে আসেনি। এই অবস্থায় ইন্দোনেশিয়া, সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া ও ব্রুনাই এই চার দেশ এবারের হজে অংশ নিচ্ছে বলে জানিয়েছে।

করোনার সংক্রমণের আশঙ্কা ও চিকিৎসায় টিকা না থাকার কারণে মালয়েশিয়ার নাগরিকদের এ বছর হজ পালনে নিষেধাজ্ঞা জারির কথা নিশ্চিত করেছেন দেশটির ধর্মমন্ত্রী জুলকিফলি মোহাম্মদ আল-বাকরি। তিনি বলেন, আমি আশা করি হজে যেতে আগ্রহীরা ধৈর্য ধারণ করবেন ও সরকারের এ সিদ্ধান্ত মেনে নেবেন। এই সিদ্ধান্তের ফলে এ বছরের জন্য নির্বাচিত ৩১ হাজার ৬০০ মানুষের হজযাত্রা বাতিল হতে যাচ্ছে।

এর আগে গত সপ্তাহে বিশ্বের সবচেয়ে মুসলিম প্রধান দেশ ইন্দোনেশিয়াও এ বছর নিজ দেশের নাগরিকদের হজযাত্রা বাতিল করে। এতে করে দেশটির ২ লাখ ২১ হাজার মানুষের হজযাত্রা বাতিল হয়।

মালয়েশিয়া ও ইন্দোনেশিয়ার মতো একই রকম সিদ্ধান্ত নিয়েছে ব্রুনাই ও সিঙ্গাপুর। ব্রুনাই সরকারের এ সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত বর্নিও বুলেটিন পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়, সৌদি সরকার কোনও সিদ্ধান্ত নিতে ব্যর্থ হওয়ায় ব্রুনাই হজযাত্রীদের আগে নিবন্ধিত হওয়া সত্ত্বেও আসন্ন হজের প্রস্তুতি বাতিল করেছে।

অন্যদিকে আগামী কয়েক দিনের মধ্যে সৌদি সরকার হজের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে ব্যর্থ হলে নাইজেরিয়াসহ আরও কয়েকটি দেশ এ ব্যাপারে নিজেদের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে বলে জানা যায়।

হজের বাকি আর খুব বেশি সময় নেই। চাঁদ দেখা সাপেক্ষে এবারের হজ আগামী ৩০ জুলাই শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।

উল্লেখ্য, কোনও মহামরির কারণে প্রথম হজ বাতিলের ঘটনা ঘটে ৯৬৭ সালে। ওই সময় প্লেগ রোগের প্রাদুর্ভাব ঘটেছিল।