করোনা আমাদের ধৈর্যের পরীক্ষা নিচ্ছে: মোদি

ভারতে বর্তমানে করোনা সংক্রমণ দৈনিক সাড়ে তিন লাখের আশেপাশে। দৈনিক মৃতের সংখ্যাও দুই হাজারের গন্ডি ছাড়িয়েছে। ভারতজুড়ে এখন আতঙ্কের চাপা পরিবেশ। দেশে কেন করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সামলানো গেল না তা নিয়ে এখন রীতিমতো প্রশ্নের সামনে কেন্দ্রের মোদি সরকার।

এই পরিস্থিতিতে আজ রোববার ‘মন কি বাত’ অনুষ্ঠানে দেশবাসীর উদ্দেশে বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

তিনি বলেন, ‘কোভিড আমাদের ধৈর্য এবং যন্ত্রণা সহ্য করার ক্ষমতার পরীক্ষা নিচ্ছে। কোভিডের থাবায় প্রিয়জনদের অনেকেই আমাদের ছেড়ে অকালে চলে গিয়েছেন। এই যন্ত্রণা, এই কষ্ট আমাদের সবার।’

নরেন্দ্র মোদি বলেন, ‘করোনার প্রতিষেধক নিয়ে কোনো গুজবে কান দেবেন না। রাজ্যগুলোকে এরই মধ্যে বিনামূল্যে করোনার প্রতিষেধক পাঠিয়ে দিয়েছে কেন্দ্র। এই সংকট মুহূর্তে প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে যেভাবে রোগীদের সাহায্য করছেন চিকিৎসকেরা তা প্রশংসনীয়। অনলাইনেও এখন রোগীদের পরামর্শ দিচ্ছেন তাঁরা।’

এদিন ভারতের প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘করোনার প্রথম ঢেউ যখন দেশের মাটিতে আছড়ে পড়েছিল, সেই সময় আমরা সফলভাবে তা সামলে উঠেছিলাম। এবারে দেশ বিধ্বস্ত, কিন্তু এই পরিস্থিতি সামাল দিতে সব ক্ষেত্রের মানুষের সঙ্গে কথা হয়েছে আমার। এই ধাক্কাও আমরা সামলে উঠব। কৃষক, প্রতিষেধক উৎপাদনকারী সংস্থা, অক্সিজেন উৎপাদনকারী সংস্থার কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা হয়েছে। করোনার এই দ্বিতীয় ঢেউ সামাল দিতে সব রকমের চেষ্টা চালানো হচ্ছে।’

মোদি আরও বলেন, ‘করোনার প্রথম ধাক্কা কাটিয়ে আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠেছিল গোটা দেশ। এবারে করোনার দ্বিতীয় ধাক্কাও আমরা কাটিয়ে উঠতে পারবো। করোনা আমাদের ধৈর্য ও সহনশীলতার পরীক্ষা নিচ্ছে।’