চট্টগ্রামে একদিনে করোনায় আক্রান্ত ৭৮৩, মৃত্যু ১০

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চট্টগ্রামে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও দশজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে চট্টগ্রাম জেলায় মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ৭৫৪ জনে। একই সময়ের মধ্যে করোনা শনাক্ত হন ৭৮৩ জন। এর মধ্য দিয়ে জেলায় মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৬৩ হাজার ৬৯৬ জনে।

শুক্রবার (৯ জুলাই) চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

সিভিল সার্জন ডা. শেখ ফজলে রাব্বি জানান, গতকাল (বৃহস্পতিবার) চট্টগ্রামের বিভিন্ন ল্যাবে দুই হাজার ১শ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৭৮৩ জনের দেহে করোনার জীবাণু শনাক্ত হয়। এদের মধ্যে নগরের ৫১০ ও উপজেলার ২৭৩ জন।

জানা যায়, গত ২৪ ঘন্টায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ১৫৪ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৭৬ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে।

বিআইটিআইডি ল্যাবে ৬৭০ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৭২ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৩১৩ জলের নমুনা পরীক্ষা করে ১০৭ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে।

ভেটেরিনারিতে ২০৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৭৫ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে।

এন্টিজেন টেস্টে ৫১৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৮৯ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে।

ইম্পেরিয়াল হাসপাতালে ১৪০ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৬৫ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে।

শেভরনের ১৫৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৪২ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে।

চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতালে ৩৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ২২ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে।

আরটিআরএলে ৪০ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৭ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে।

মেডিকেল সেন্টার হাসপাতালে ৬৯ জনের শরীরে নমুনা পরিক্ষা করে ১৮ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার লোহাগাড়া উপজেলায় ০৫ জন, সাতকানিয়া উপজেলায় ১২ জন, বাঁশখালী উপজেলায় ৭ জন, আনোয়ারা উপজেলায় ১৯ জন, চন্দনাইশ উপজেলায় ৩ জন, পটিয়া উপজেলায় ১৬, বোয়ালখালী উপজেলায় ০৩ জন, রাঙ্গুনিয়া উপজেলায় ২৩ জন, রাউজান উপজেলা ২৮ জন, ফটিকছড়ি উপজেলায় ২০ জন, হাটহাজারী উপজেলায় ৪৩ জন, সীতাকুণ্ড উপজেলায় ৪২ জন, মীরসরাই উপজেলায় ৩৭ জন ও সন্দ্বীপ উপজেলায় ১৫ জন নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।