বিশ্বে করোনায় মারা যাচ্ছে মিনিটে ৭ জন, ক্ষুধায় ১১

বিশ্বে প্রতি মিনিটে ১১ জন ক্ষুধায় মারা যায়। এছাড়া গত বছরের তুলনায় চলতি বছর বিশ্বে দুর্ভিক্ষের মতো পরিস্থিতি ছয় গুণ বেড়েছে। শুক্রবার আন্তর্জাতিক দাতব্য সংস্থা অক্সফাম এক নতুন প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

দ্য হাঙ্গার ভাইরাস মাল্টিপ্লাইস শিরোনামের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, করোনায় প্রতি মিনিটে সাত জন করে মারা যাচ্ছে। দুর্ভিক্ষের কারণে মৃতের সংখ্যা তাকেও ছাড়িয়ে যাচ্ছে।

অক্সফামের যুক্তরাষ্ট্র শাখার প্রেসিডেন্ট ও প্রধান নির্বাহি কর্মকর্তা অ্যাবি ম্যাক্সম্যান বলেছেন, ‘পরিসংখ্যানগুলো বিস্ময়কর, তবে আমাদের অবশ্যই মনে রাখতে হবে যে, এই পরিসংখ্যানগুলো অকল্পনীয় দুর্ভোগের শিকার পৃথক ব্যক্তিদের নিয়ে। এমনকি একজন ব্যক্তিও অনেক বেশি।’

দাতব্য সংস্থাটি জানিয়েছে, বিশ্বে এখন ১৫ কোটি ৫০ লাখ মানুষ খাদ্য নিরাপত্তাহীনতার সংকট কিংবা এরচেয়ে বাজে পরিস্থিতিতে বাস করছে। এই সংখ্যা গত বছরের তুলনায় দুই কোটির বেশি। এদের মধ্যে দুই তৃতীয়াংশ দেশে সামরিক সংঘাতের কারণে খাদ্য সংকটে ভুগছেন।

মধ্য জুনে ইথিওপিয়া, মাদাগাস্কার, দক্ষিণ সুদান ও ইয়েমেনে তীব্র দুর্ভিক্ষের মুখে পড়া মানুষের সংখ্যা পাঁচ লাখ ২১ হাজার ৮১৪ জনে গিয়ে পৌঁছে। গত বছরের তুলনায় এই সংখ্যা ৫০০ গুণ বেশি। করোনা মহামারি ও এর কারণে সৃষ্ট অর্থনৈতিক কারণে ইয়েমেন, কঙ্গো, আফগানিস্তান ও ভেনেজুয়েলায় বিদ্যমান খাদ্য সংকট আরও নাজুক হয়েছে।