মুক্তচিন্তা ও সংস্কৃতির শক্তিতেই বাংলাদেশকে রক্ষা করতে : আসাদুজ্জামান নুর

News Photo-2চট্টগ্রাম অফিস: সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নুর বলেছেন, বঙ্গবন্ধু বাঙালি সংস্কৃতি বিকাশ ও উন্নয়নে বিস্ময়কর সব কাজ করে গেছেন। বঙ্গবন্ধু শুধু চিন্তাই করেননি বাস্তবায়নও করেছেন। জিয়াউর রহমান ছিল আমেরিকা ও পাকিস্তানের হয়ে মুক্তিযুদ্ধে অনুপ্রবেশকারী। জিয়াউর রহমান তার পরবর্তী কর্মকান্ডে এ সবের প্রমাণ রেখেছেন। হ্যা না ভোটের আয়োজনকারীরা আজ গণতন্ত্রের কথা বলে শুনে দুঃখ লাগে। স্বাধীনতার ঘোষনা নিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টির চেষ্টা সফল হয়নি। নতুন প্রজন্ম মিথ্যা ইতিহাস গ্রহণ করেনি। নতুন প্রজন্ম নিয়ে আমাদের একটি ভূল ধারনা ছিল। কিন্তু সেই প্রজন্ম মাটি খুঁড়ে ইতিহাসের সত্য বের করে এসেছে। তারা গণজাগরণ ঘটিয়েছে। জাতির জীবনে যদি কোন সংকট তৈরী হয় এই নতুন প্রজন্ম অবশ্যই এগিয়ে আসবে। মুক্তচিন্তা ও সংস্কৃতির শক্তিতেই বাংলাদেশকে রক্ষা করবে নতুন প্রজন্ম।চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জননেতা মোছলেম উদ্দিন আহমদ বলেন, পেট্টোল বোমা মেরে মানুষ হত্যা করে যারা উন্নয়নের অগ্রযাত্রা ব্যাহত করার ষড়যন্ত্র করছে তারা জনবিচ্ছিন্ন হয়ে যাবে। তিনি বলেন, এদেশে গণতন্ত্র হত্যা করেছে জিয়া। জিয়া ক্ষমতায় দখল করে এদেশে স্বৈরশাসন প্রতিষ্ঠা করেছে। জিয়া এদেশে কালো বাক্স সাদা বাক্সে ভোট করেছে। তিনি বলেন. জামাতকে সঙ্গে নিয়ে বিএনপি দেশকে জঙ্গীর দেশে পরিনত করতে চায়। এ ষড়যন্ত্র রুখে দিয়ে জনগনের কল্যানে নিবেদিত হওয়ার জন্য আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীদের প্রতি আহবান জানান।চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান বলেন, মানুষ হত্যার অপরাজনীতি বন্ধ করুন কারন মানুষ হত্যার অপরাজনীতির জন বিচ্চিন্ন হয়ে যাবে। তিনি সকল ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সোচ্চার হবার জন্য সকল শ্রেণী-পেশার মানুষের প্রতি আহবান জানান। আজ ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ পালন উপলক্ষে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের এক সমাবেশ সংগঠনের সভাপতি জননেতা মোছলেম উদ্দিন আহমদের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমানের সঞ্চালনায় সংগঠনের আন্দরকিল্লাস্থ দলীয় কার্যালয় প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হয়।সভায় বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আমিনুল ইসলাম আমিন, সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম চৌধুরী, সংসদ সদস্য ওয়াশেকা আয়েশা খান, আওয়ামী লীগ জাতীয় কমিটির সদস্য এড: জসিম উদ্দিন আহমদ খান, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ সহ সভাপতি মোতাহেরুল ইসলাম চৌধুরী, মো: ইদ্রিস, আবুল কালাম চৌধুরী, এ কে এম সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, আবু সাঈদ, আইন বিষয়ক সম্পাদক এড: মির্জা কছির উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক এড: জহির উদ্দিন, প্রদীপ দাশ, পটিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি রাশেদ মনোয়ার, এড: আবদুর রশিদ, দপ্তর সম্পাদক আলহাজ্ব আবু জাফর, শ্রম সম্পাদক খোরশেদ আলম, এড: কামরুন নাহার, তথ্যা ও গবেষনা সম্পাদক আবদুল কাদের সুজন, শিক্ষা ও মানবসম্পদ সম্পাদক বোরহান উদ্দিন মো: এমরান, শাহনেওয়াজ হায়দার শাহীন, আবদুল হান্নান চৌধুরী মঞ্জু, উপ দপ্তর সম্পাদক বিজয় কুমার বড়–য়া, চেয়ারম্যান নাছির আহমদ, আনোয়ারুল ইসলাম সওগাত, মোস্তাক আহমদ আঙ্গুর, এস এম জাহাঙ্গীর, বোয়ালখালী উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক নুরুল আলম, দেবব্রত দাশ, সাতকানিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক কুতুব উদ্দিন, লোহাগাড়া থানা আওয়ামী লীগ সভাপতি খোরশেদ আলম, সাধারণ সম্পাদক সালাউদ্দিন হিরু, মাহবুবুল আলম চৌধুরী, দক্ষিণ জেলা কৃষক লীগ সভাপতি সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান চৌধুরী, দক্ষিণ জেলা স্বেচ্চাসেবক লীগ আহবায়ক মো: জোবায়ের, কেন্দ্রীয় যুবলীগ সদস্য জাহেদুর রহমান সোহেল, সৈয়দ মেজবাহ উদ্দিন পাপ্পু, শফিউল আজম শেফু, এম এ রহিম, দক্ষিণ জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী খালেদা আক্তার চৌধুরী, ববিতা বড়ুয়া, শামীমা হারুন লুবনা, এড: সুচিত্রা লালা মুন্নি, , সোলতানা আকতার নিলু, তাহমিনা আক্তার ফৌজিয়া, জান্নাত আরা, আবদুল মান্নান রানা, দক্ষিণ জেলা বঙ্গবন্ধু শিশু-কিশোর মেলার সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার মোর্শেদ, দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগ নেতা আবদুল হান্নান লিটন, জামিল উদ্দিন, শিহাবুল হক সিকদার, এস এম বোরহান উদ্দিন, রাশেদুল আরেফিন জিসান, মিজানুর রহমান, নজরুল ইসলাম, আমিনুল ইসলাম লিটন, তানভীর চৌধুরী, তারেকুর রহমান, মহিউদ্দিন, ইসকান্দর প্রমুখ।