লোহাগড়ায় দুই সন্তানকে হত্যা: মায়ের আত্মহত্যার চেষ্ঠা

lohagara-ctg-25.মোহাম্মদ সেলিম, লোহাগাড়া প্রতিনিধি: নিজের পেটের ২ শিশু সন্তানকে জবাই করে ও কুপিয়ে হত্যা করার পর আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছেন মা। চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার বড়হাতিয়া ইউনিয়নের এনায়েত পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত ২ শিশু সন্তান হ্যাপী আক্তার (৭) ও মো. ইয়াছিন (২) কে থানা হেফাজতে নেয়া হয়েছে এবং গুরুতর আহত মা রেহেনা আক্তারকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।স্থানীয়রা জানান, মো. হুমায়ুন কবির (২৮) পাশ্ববর্তি একটি বাজারে রাতে প্রহরীর চাকরীর করেন। ভোরে বাড়ি ফিরে দেখেন, ঘরে দু সন্তানের চিন্ন ভিন্ন লাশ পড়ে আছে। এখানে ওখানে ছোপ ছোপ রক্ত। পাশের একটি ঘরে খাটের নিচে লুকিয়ে আছে স্ত্রী রেহেনা। সেখান থেকে পাড়ার অন্যরা সহ তাঁকে টেনে বের করলে দেখা যায় তিনি নিজেও মারাত্মক আহত। শরীরের বিভিন্ন স্থান থেকে রক্ত ঝরছে। খবর দ্রুত ছড়িয়ে পড়লে এলাকার লোকজন ঘটনাস্থলে ভিড় জমায়। ধারণা করা হচ্ছে, রাতের যে কোন সময় মা রেহেনা আক্তার সন্তান দুটিকে কুপিয়ে ও জবাই করে হত্যা করে। পরে এস আই নুরুল ইসলাম ও এস আই রবিউল হোসেনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ এসে শিশু দুটির লাশ উদ্ধার করে। পরে গুরুতর আহত রেহেনা আক্তারকে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে সেখান থেকে চমেক হাসপাতালে রেফার করা হয়।এ দিকে এ মর্মান্তিক ঘটনায় এলাকায় ব্যপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। স্থানীয়রা বলছেন, আগে থেকেই মা রেহেনা আক্তার মানসিক প্রতিবন্ধী ছিলেন। এর বাইরে আর্থিক অভাব-অনটনের কারণে ধার-দেনাও প্রচুর হয়েছিল। এ নিয়ে পরিবারে কলহ লেগেই থাকত। তবে কি কারণে মা নিজের সন্তানদ্বয়কে এমন নৃশংসভাবে হত্যা করে নিজেও আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছেন সে ব্যাপারে স্পষ্ট করে কেউ কিছু বলতে পারছেন না।