বিএনপির মেয়র প্রার্থী মন্জুরের পাশে নেই শীর্ষ নেতারা

indexনজরুল ইসলাম,চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরশনের নির্বাচনে বিএনপির দলীয় প্রার্থী সাবেক মেয়র মনজুরুল আলমের পাশে নেই অধিকাংশ শীর্ষ নেতারা। বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্ঠা ও সাবেক মেয়র মন্জুরুল আলমের সাথে শুরু থেকেই বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আল নোমান, চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সভাপতি আমির খসরু মাহামুদ চৌধুরী, চট্টগ্রাম দক্ষিন জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক মন্ত্রী জাফরুল ইসলাম চৌধুরীকে দেখা গেলেও অধিকাংশ শীর্ষ নেতাদের মেয়র প্রার্থী মনজুরুল আলমের পাশে দেখা যাচ্চে না। যে সব নেতা বর্তমানে মনজুরুল আলমের পাশে দেখা যাচ্ছে না তারা হলেন, সাকেব মেয়য় ও বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্ঠা মীর মোহাম্মদ নাসির উদ্দীন, চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সাবেক আহবায়ক ও জাতীয় সংসদের সাবেক হুইপ ওয়াহিদুল আলম, বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম আকবর খন্দকার, বিএনপির আর্ন্তজাতিক বিয়য়ক সম্পাদক গিয়াস উদ্দীন কাদের চৌধুরী, চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সাধারন সম্পাদক ডাঃ শাহাদাত হোসেন, চট্টগ্রাম দক্ষিন জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক গাজী মোহাম্মদ শাহজাহান জুয়েল, বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সৈয়দ সাদাত আহমদ, সাবেক সংসদ সদস্য সরওয়ার জামান নিজাম, চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি গাজী মোহাম্মদ সিরাজ উল্লাহ, সাধারন সম্পাদক বেলায়ত হোসেন বুলু, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদল সভাপতি নেছারুল ইসলাম তৌহিদ, সাধারন সম্পাদক সাইফুৃদ্দিন সালাম মিতু, এ ছাড়াও সাবেক পররাষ্ট্র মন্ত্রী ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এম মোরশেদ থান অসুস্থ জনিত কারনে বিদেশে অবস্থান করছেন বলে একটি সূত্রে জানা গেছে। তৃনমুল নেতা কর্মীদের অভিযোগ মেয়র মনজুরুল আলম গতবার বিএনপির সমর্থণ নিয়ে মেয়র নির্বাচিত হলেও বিএনপির কোন আন্দোলন সংগ্রামে একদিনও তাকে প্ওায়া যায়নি। বিএনপির ছাত্রদল, যুবদলসহ হাজার হাজার নেতা কর্মী সরকার বিরোধী বিভিন্ন আন্দোলন সংগ্রাম করতে গিয়ে জেল জুলুম নির্যাতের শিকার হলেও মেয়র মনজুর কোন ধরনের সহযোগিতা করেনি। বিএনপির নেতা কর্মীদেও কোন খোঁজ-খবর পর্যন্ত নেয়নি। এ ছাড়া ২০ দলীয় জোটের শরীক জামাত-শিবিরসহ বিভিন্ন দলের প্রায় লক্ষাধিক ভোটার থাকল্ওে তাদেকেও কোন ধরনের মূল্যায়ন করা হয়নি।এব্যাপারে চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি গাজী মোহাম্মদ সিরাজ উল্লাহ বলেন, সরকার বিরোধী বিভিন্ন আন্দোলন সংগ্রাম করতে গিয়ে বিএনপি ছাত্রদল, যবদলের কয়েক হাজার নেতা কর্মী মিথ্যা মামলায় জেল-জুলুম নির্যাতনের শিকার হয়েছে । ডাঃ শাহাদাত হোসেন ছাড়া বিএনপির কোন নেতা আমাদের তেমন খবরা-খবর নেয়নি। চট্টগ্রামবাসী প্রত্যাশা করছিল ডাঃ শাহাদত হোসেনকে বিএনপির পক্ষ থেকে মেয়র পদে মনোয়ন দেয়া হবে । কিন্তু তাকে মনোয়ন না দেয়ায় বিএনপির নেতা কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভের আগুণ জ্বলছে। বিএনপির চেয়ারপার্সন এটার হস্তক্ষেপ না করণে ক্ষোভের আগুন আরো বেশী জ্বলতে থাকবে। এব্যাপারে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের সাধারন সম্পাদক সাইফুদ্দিন সালাম মিতু বলেন, ছাত্রদলের হাজার হাজার নেতা কর্মী মিথ্যা মামলায় জেল-জলুম নির্যাতনের শিকার হয়ে কারাবন্ধি অবস্থায় আছে। কিন্তু তাদের পরিবারকে মেয়র মনজুরুল আলমের পক্ষ থেকে কোন ধরনের শান্তনা, সমবেদনা, সহযোগতা করেনি।